বাণিজ্য সময়বেনাপোল স্থরবন্দরে যাত্রীসেবা সেবার নামে সার্ভিস চার্জ, কিন্তু নেই কোনো সুবিধা!

বাণিজ্য সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
বিভিন্ন সেবার নামে ভারতগামী যাত্রীদের কাছ থেকে চার্জ আদায় করা হলেও প্রতিশ্রুত কোন সুবিধা দেয়া হচ্ছেনা বেনাপোল আন্তর্জাতিক প্যাসেঞ্জার টার্মিনালে। তার উপর ৬ মাসের মধ্যে সার্ভিস চার্জ বাড়ানো হয়েছে ৪২টাকা। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন যাত্রী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। তবে কর্তৃপক্ষ বলছে শিগগিরই সব সেবা চালু করা হবে। 
বেনাপোল স্থলবন্দর চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে যাওয়া যাত্রীদের সেবা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ ২০১৭’র ৩ জুন আন্তর্জাতিক প্যাসেঞ্জার টার্মিনাল চালু করে। পূর্ব ঘোসণা ছাড়াই কর্তৃপক্ষ টার্মিনালের তিনটি কাউন্টার চালু করে যাত্রীদের কাছ থেকে এন্ট্র ফি, ওয়েটিং চার্জ, সার্ভিস চার্জ ও টার্মিনাল চার্জ বাবদ ৩৮ টাকা ৭৬ পয়সা করে আদায় শুরু করে। 
গত ছয়মাস ধরে সার্ভিস চার্য আদায় করা হলেও নিশ্চিত করা হয়নি যাত্রীসেবার বিষয়টি। সেবা না দিয়ে চার্য গ্রহণ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন যাত্রীরা।
এক ভুক্তভেঅগী যাত্রী জানান, ‘৪২ টাকা যে বন্দর-প্যাসেঞ্জার-টার্মিনালে নিচ্ছে যাত্রী প্রতি, এটা আসলেই অসহনীয়।’
আরেক যাত্রী জানালেন, ‘নরমালি কোনোরকম যাই আর আসি, তাতেই ৪২ টাকা নিচ্ছে। সেবা বলতে কিছুই পাচ্ছি না।’
স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানালেন, সার্ভিস চার্জ-এর বাইরে বাড়তি টাকা নেয়া হচ্ছে। অথচ’ যাত্রী দুর্ভোগ নিরসনে কোনো উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। তাই অবিলম্বে সার্ভিস চার্জ আদায় বন্ধের দাবি তাদের।
এক ব্যবসায়ী বলেন, ‘এই জায়গা থেকে গেট বানিয়ে কয়টা চেয়ার বসিয়ে দিয়েছে বনার জন্য। ৪০ টাকা করে এতদিন নিয়েছে। এখন আবার দুই টাকা বাড়িয়ে দিয়েছে।’
আরেক যাত্রী দাবি করেন, ‘৪২ টাকা মওকুফ করে দিয়ে আগে যেমন ছিলো, তেমনই করুক।’
এদিকে, কর্তুপক্ষ বলছে কিছু সেবা নিশ্চিত করা হয়েছে। বাকিটা শিগগিরই চালু করা হবে। 
বেনাপোলে বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ’র পরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘যাত্রীদের এই দিক দিয়ে যাওয়ার সময় বসার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পর্যপ্ত টয়লেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সুপেয় পানির ব্যাবস্থা করা হয়েছে। আরেকটা উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হলো, তাদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা হয়েছে। আমরা আশা করছি, এখানে যাত্রীগণ, যে সেবাটা পাওয়ার কথা, সেটা পাবে। পর্যায়ক্রমে আমরা কাজগুলো সম্পন্ন করছি, একটু সময়ের ব্যাপার মাত্র।’
বেনাপোল স্থলবন্দর চেকপোস্ট দিয়ে প্রতিদিন বাংলাদেশ থেকে প্রায় ছয় হাজার মানুষ ভারতে যান। এর মাধ্যমে গত ছয়মাসে প্রায় ২ কোটি টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে।    

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop