ksrm

খেলার সময়দুই কোরিয়াকে এক সুতোয় গাঁথলো অ্যাথলেটিক্স

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার অ্যাথলেটদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে এগিয়ে এসেছে দেশ দুটির অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন।
উত্তর কোরিয়ায় আয়োজন করা হয় যৌথ অনুশীলন ক্যাম্পের। ক্যাম্প শেষে প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নেন দুই দেশের ৩০ জন অ্যাথলেট।
এ আয়োজন দু'দেশের মধ্যে বৈরি সম্পর্ক ভুলে সবার মাঝে চমৎকার সম্পর্ক গড়ে তুলেছে বলে জানান অংশ নেয়া অ্যাথলেটরা।
নানা প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে অবশেষে ৯ ফেব্রুয়ারি আলোর মুখ দেখবে শীতকালীন অলিম্পিক গেমস। যেখানে ১৫টি ডিসিপ্লিনে ১০২টি ইভেন্টে পদকের জন্য লড়বেন ৯২ টি দেশের প্রতিযোগীরা। আসরের ভেন্যু দক্ষিণ কোরিয়ার পায়ংচ্যাং।
প্রতিবেশী দেশ উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার বৈরি সম্পর্কের কথা সবারই জানা। উত্তর কোরিয়ার একের পর এক পারমানবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোয় হুমকি হয়ে দেখা দেখা দিয়েছিলো গেমসের আয়োজন। তবে, গেল একমাস ধরে একের পর এক আলোচনার পর অবশেষে গলেছে বরফ। এবার দু'দেশের অ্যাথলেটদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরির জন্য এগিয়ে এসেছে দেশ দুটির অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন।
দেখে কে বলবে? এই কদিন আগেও এ দুই দেশের মধ্যে ছিলো দা কুমড়ার সম্পর্ক। কিন্তু ক্রীড়াঙ্গনের সবচেয়ে বড় উৎসব অলিম্পিক গেমস তাদের নিয়ে এসেছে এক ছাদের নিচে। এক সঙ্গে দু'দিনের অনুশীলন ক্যাম্পে অংশ নিয়েছেন দু'দেশের ৩০ জন অ্যাথলেট।
উত্তর কোরিয়ার পাহাড়ে ঘেরা মাসিকরিয়ং স্কি রিসোর্টে আয়োজন করা হয় এই অনুশীলন ক্যাম্পের। এক সঙ্গে একই রিসোর্টে থাকা খাওয়া। একসঙ্গে অনুশীলন। যা অল্প সময়ের মধ্যে তাদের মধ্যে গড়ে তুলেছে সৌহার্দ্যের সম্পর্ক।
পরে বরফে ঢাকা পাহাড়ে স্কেটিং। এরপর আয়োজন করা হয় প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের। যেখানে ফলাফল নয়, সৌহার্দ্যের বন্ধনই ছিলো বড় বিষয়। আর এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন খেলোয়াড়রা।
একজন অ্যাথলেট বলেন, 'এটা সত্যিই প্রশংসনীয় একটি উদ্যোগ। এর মধ্যে দিয়ে আমি মনে করি আমাদের মধ্যে দারুণ বোঝাপড়া তৈরি হবে। প্রতিযোগিতা চলাকালীন এ সম্পর্ক আমাদের ভাল খেলতে উৎসাহ যোগাবে।'
দক্ষিণ কোরিয়ার একজন অ্যাথলেট বলেন, 'আমি বিস্মিত উত্তর কোরিয়ার খেলোয়াড়রা দারুণ একটি পরিবেশে অনুশীলন করছে। ওদের পারফরমেন্স বেশ ভাল। একসঙ্গে আমরা অনেক আনন্দ করেছি।'
খেলাধুলাই পারে যে কোন জাতিকে এক সুতোয় গাঁথতে। দুই কোরিয়ার খেলোয়াড়দের আশা ভবিষ্যতে এ সম্পর্ক দুটি দেশের নাগরিকদেরও আরো কাছাকাছি নিয়ে আসবে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop