মহানগর সময়হজ্বের পাসপোর্ট নিয়ে রোহিঙ্গাদের সৌদি যাওয়ার আশঙ্কা

কমল দে

fb tw
চলতি হজ্ব মৌসুমে রোহিঙ্গাদের একটি অংশ বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে সৌদি আরব চলে যেতে পারে এমন আশংকায় বিশেষ সতর্কতা ব্যবস্থা নিয়েছে পাসপোর্ট অধিদপ্তর। পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারীদের এখন তিন দফায় পরীক্ষা করা হচ্ছে। সে সাথে কড়াকড়ি আরোপ করা হচ্ছে পুলিশ ভেরিফিকেশনের ক্ষেত্রেও। পবিত্র হজ্বের আগে পাসপোর্ট তৈরির অতিরিক্ত চাপের কারণে রোহিঙ্গারা সুযোগের অপেক্ষায় থাকায় এ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পাসপোর্ট বিভাগের কর্মকর্তারা।
স্বাভাবিক সময়ে চট্টগ্রাম বিভাগীয় পাসপোর্ট কার্যালয়ে প্রতিদিন সাড়ে চারশো আবেদন জমা হওয়ার পাশাপাশি দেয়া হয় অন্তত সাড়ে তিনশো নতুন পাসপোর্ট। একইভাবে আঞ্চলিক কার্যালয়ে চারশো আবেদন জমা পড়ার পাশাপাশি তিনশ নতুন পাসপোর্ট প্রদান করা হয়। কিন্তু পবিত্র হজ্বের আগে এ সংখ্যা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। হজ্বের গুরুত্ব বিবেচনা করে নির্ধারিত সময়ে পাসপোর্ট তৈরি করে তা দিতে তড়িঘড়ি করতে হয় পাসপোর্ট অধিদপ্তরকে। আর এ সুযোগকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করে রোহিঙ্গারা।    
আটাব সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল হক শুক্কুর বলেন, 'স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় যেনো যাচাই-বাছাই করে পাসপোর্ট দেয়। এই পাসপোর্টের কারণে রোহিঙ্গারা বিভিন্ন দেশে গিয়ে অপকর্মে লিপ্ত হয়।'
হাব চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, 'আমি পাসপোর্ট দেখে চিনবো না। কোনটা বাংলাদেশি আর কোনটা রোহিঙ্গা। তাই পাসপোর্ট দেয়ার জায়গা থেকে ঠিক করে নিতে হবে।'
গত বছর’ও পবিত্র হজ্ব চলাকালে বাংলাদেশে রোহিঙ্গার অবস্থান ছিলো ৩ থেকে ৪ লাখ। এসব রোহিঙ্গাদের মধ্যে একটি অংশ চেষ্টা চালিয়েছিলো বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে সৌদি আরব চলে যাওয়ার। কিন্তু বর্তমানে এ সংখ্যা ১১  লাখ ছাড়িয়ে গেছে। ফলে এবার সে শঙ্কা আরো বেড়েছে। ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে বাংলাদেশীদের মধ্যে হজ্বে যেতে পাসপোর্ট তৈরির তোড়জোড়।
বিভাগীয় পাসপোর্ট কার্যালয় উপ পরিচালক বলেন, আবু নোমান মো. জাকির হোসাইন বলেন,যেহেতু বারবার ভেরিফিকেশন হচ্ছে। আশা করছি হজ্ব মৌসুমের আগেই সব শৃঙ্খলার মধ্যে নিয়ে আসব।'
জাল নথিপত্র দিয়ে পাসপোর্ট নেয়ার ক্ষেত্রে রোহিঙ্গারা খুব সহজে পুলিশ ভেরিফিকেশন পার হয়ে যায় বলে অভিযোগ দীর্ঘদিনের। আগে রোহিঙ্গারা শুধুমাত্র কক্সবাজার উপজেলার টেকনাফ এবং উখিয়ার পরিচয় ব্যবহার করলেও বর্তমানে চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলার ঠিকানা ব্যবহার করছে। এ অবস্থায় ভেরিফিকেশনেও কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল মাসুদ বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে পাসপোর্টের আওতায় না আসতে পারে তাই সরেজমিনে সব থানায় নির্দেশনা দেয়া আছে।'
গত দু’মাসে চট্টগ্রামের দু’টি পাসপোর্ট কার্যালয়ে বাংলাদেশী পরিচয়ে পাসপোর্ট করাতে গিয়ে অন্তত ২৫ জন রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে। সে সাথে জব্দ করা হয়েছে আরো বেশক’জন রোহিঙ্গার জাল নথিপত্র।
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop