ksrm

খেলার সময়কোয়ার্টার ফাইনালের পথে জিদান শিষ্যরা

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
রোনালদোর রেকর্ডের রাতে প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের দম্ভ চূর্ণ করে ৩-১ গোলে জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। শীর্ষ ষোলো'র প্রথম লেগের দাপটে জয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের পথে এগিয়ে গেছে জিদান শিষ্যরা। আরেক ম্যাচে, সাদিও মানের হ্যাটট্রিকে পোর্তো'কে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে লিভারপুল। এ জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে ক্লপের দলের।
আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় বসছে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। বিশ্ব ফুটবলের মহাযজ্ঞের আগে ফুটবল প্রেমীদের জন্য রোমাঞ্চকর এক ম্যাচের মহড়া নিয়ে হাজির হয়েছিলো দুই লিগের দুই জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ ও পিএসজি। পুরো দুনিয়ার ফুটবল প্রেমীদেরই চোখ ছিলো হাইভোল্টেজ এ ম্যাচের ফলাফলের দিকে।
ইতিহাস বলছে ১২ বারের ইউরোপ সেরা রিয়ালের ৬ টিই এসেছে ১৯৭০ সালে পিএসজির জন্মের আগে। তাই সোনালী অতীত মিথ্যে প্রমাণিত হয়নি এ ম্যাচেও। রোনালদো বনাম নেইমারের এ দ্বৈরথে জয় হয়েছে পর্তুগিজ যুবরাজের।
সাম্প্রতিক বাজে সময়ের কারণে হাতছাড়া হয়েছে লিগ ও কোপা দেল রে। তবে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বরাবরই সফল মাদ্রিদিস্তান। বার্নাব্যুতেও সমর্থকরা সে ঝলক দেখলো আরো একবার। প্রতিপক্ষ পিএসজি'কে শুরু থেকেই চাপে রেখে খেলে রিয়াল।
২৬ মিনিটেই বার্নাব্যুতে আনন্দের বন্যা বইয়ে দিতে পারতেন রোনালদো। কিন্তু সি আর সেভেনের ফ্রি কিক ক্রসবারের ওপর দিয়ে চলে গোলবঞ্চিত হয় স্বাগতিকরা। উল্টো ৩৩ মিনিটে চাপে থেকেও লিড পায় পিএসজি। কিলিয়ান এমবাপের ক্রসে গোল করেন আরেক ফরাসি আদ্রিও র‌্যাবিওট।
পাঁচ মিনিট পর ডি বক্সে টনি ক্রুসকে ফাউল করে বসেন পিএসজির জিওভানি। পেনাল্টি পায় রিয়াল। আর তা থেকে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান সি আর সেভেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটি রিয়ালের হয়ে রোনালদোর শততম গোল।
বিরতির পর আরো আগ্রাসী হয়ে খেলে রিয়াল। ৮৩ মিনিটে মার্কো আসেনসিওর ক্রসে দলকে ২-১ এ লিড উপহার দেন রোনালদো। তিন মিনিট পর দুর্দান্ত গোলে রিয়ালের বড় জয় নিশ্চিত করেন মার্সেলো। পুরো ম্যাচে নেইমারকে কড়া মার্কিংয়ে রাখেন রিয়াল ডিফেন্ডাররা। খোলস ছেড়ে বেরই হতে পারেননি ব্রাজিলিয়ান তারকা। তবে, হতাশ পিএসজির আশার আলো এখনও জ্বলছে নিভু নিভু করে। ৬ মার্চ ফিরতি লেগে বড় জয়ই পারে তাদের আসরে টিকিয়ে রাখতে।
এদিকে, সব আলো বার্নাব্যুতে থাকলেও, পোর্তোর মাঠে একাই আলো ছড়িয়েছেন সাদিও মানে। কঠিন সময়ে দলকে হ্যাটট্রিক করে বড় জয় উপহার দিয়েছেন। পোর্তোর মাঠে ২৫ মিনিটে নিজের গোলের শুরু করেন মানে।
এরপর ৫৩ ও ৮৫ মিনিটে আরো দুটি গোল করেন সেনেগালের এই তারকা।
লিভারপুলের হয়ে অন্য দুটি গোল করেন মিশরীয় ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহ ও রবার্তো ফিরমিনো।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop