ksrm

শিক্ষা সময়অধিকাংশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়েই নেই কোন শহীদ মিনার

শিক্ষা সময় ডেস্ক

fb tw
বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন থেকে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ মিনার করার নির্দেশনা থাকলেও অধিকাংশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ই মানছে না এ নির্দেশনা। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বলছে, স্থায়ী ক্যাম্পাস না থাকা বা জায়গা সংকটের কারণেই তারা শহীদ মিনার স্থাপন করতে পারছেনা। তবে ইউজিসি বলছে, প্রয়োজনে প্রতীকী শহীদ মিনার করতে হবে।
 
বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের তথ্যানুযায়ী দেশে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা এখন ৯৬টি। কিন্তু এগুলোর বেশিরভাগেই নেই শহীদ মিনার। অথচ প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় সবজায়গায়ই রয়েছে ভাষা আন্দোলনের শ্রদ্ধার প্রতীক শহীদ মিনার। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা বলছেন, প্রত্যেকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়েই শহীদ মিনার স্থাপন দরকার।
একজন শিক্ষার্থী বলেন, 'এটা অবশ্য থাকা উচিত। এটা না থাকা আমাদের জন্য ব্যর্থতা।'
আরেকজন শিক্ষার্থী বলেন, 'বেশিরভাগ বিশ্ববিদ্যালয় কনজাস্টেড এরিয়াতে থাকে। এজন্য হত তারা নির্মাণ করে না। তবে শহীদ মিনার থাকা উচিত।'
তবে ভাড়া বাড়িতে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর ফলে শহীদ মিনার করা যাচ্ছে না বলে মন্তব্য করছেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
গ্রীন ইউনিভার্সিটির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড.ফাইয়্যাজ খান বলেন, 'শহীদ মিনার আসলে থাকা উচিত। আমিও মানি। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে আমি বলবো, বেশিরভাগ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাড়া বারিতে। তারা হত কয়েকদিন পর চলে যাবে। শহীদ মিনার করবো জায়গার অভাব, তাই করা হয়ে ওঠেনা।'
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ মিনার না থাকা কর্তৃপক্ষের হীনমন্যতাকেই দায়ী করলেন ভাষা সংগ্রামীরা।  
ভাষা সংগ্রামী অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম বলেন, 'শহীদ মিনার একটা প্রতীক। ভাষা আমাদের মাতৃভাষা সেটাই তো আমরা ঠিকমত করছি না। আমাদের সামাজিক কর্মকাণ্ডের তো ব্যবহার হচ্ছে না। যতক্ষণ পর্যন্ত সমাজের সচেতনতা না উঠবে ততক্ষণ এটা আরো অবনতি হবে।'
বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন বলছে, শহীদ মিনার স্থাপন আইন করে নয়, এটি দেশপ্রেম ও ভাষা চেতনা থেকেই করতে হবে।
বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান  অধ্যাপক আব্দুল মান্নান বলেন, 'এটা সরকারি-বেসরকারির বিষয় না। এটা একটি গোষ্ঠীর চিন্তাচেতনা, ভাবনা। এটা উপলব্ধির ব্যাপার। তবে আমরা শহীদ মিনার দেখতে চাই।'
তবে স্থায়ী ক্যাম্পাসে শহীদ মিনার না করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানায় ইউজিসি।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop