মহানগর সময়বিবিধ অজুহাতে বাড়ছে হজ্বের খরচ

কমল দে

fb tw
somoy
এবারের পবিত্র হজ্ব যাত্রায় হাজীদের বিমান ভাড়া ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা নির্ধারণের পরিকল্পনা নিয়েছে বিমান বাংলাদেশ এবং সৌদিয়া এয়ারলাইন্স। জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার অজুহাতে বিমান বাড়ানোর এ পরিকল্পনায় ক্ষুদ্ধ হজ্ব যাত্রীদের পাশাপাশি হাব নেতারাও। বিমান ভাড়া বাড়ানোর পরিকল্পনাটি সোমবার মন্ত্রী পরিষদের বৈঠকে অনুমোদন হওয়ার কথা রয়েছে। 
অ্যাটাব এবং হাব নেতাদের মতে, সৌদি আরবে পবিত্র ওমরাহ পালনের জন্য আসা-যাওয়ার বিমান ভাড়া এমনিতেই মাত্র ৫৫ হাজার টাকা। কিন্তু গত বছর পর্যন্ত পবিত্র হজ্ব পালনের জন্য বিমান ভাড়া নির্ধারিত করেছিলো ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা। মূলত হজ্ব যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে খালি বিমান আনতে হয় বলে ভাড়া আদায় করা হয় দ্বিগুণের বেশি। এর মাঝে এবার জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কথা উল্লেখ করে হাজী প্রতি বিমান ভাড়া আরো ১৫ হাজার টাকা বাড়ানোর পরিকল্পনা নিয়েছে বাংলাদেশ বিমান ও সৌদিয়া এয়ারলাইন্স।
হজ্ব যাত্রী কল্যাণ সংস্থার সভাপতি মুজিবুল হক শুক্কুর বলেন, 'বৈশ্বিক বাজারে তেলের দাম বেড়ে যাওয়া কারণে তারা ভাড়াটি বৃদ্ধি করেছে। বিমান যদি যাওয়া সময় ভরে যায় আর আসার সময়ে খালি হয়ে আসে তাও এতো ভাড়া বেশি হওয়ার কথা নয়। আমাদের দাবি ১ লাখ ২৫ হাজারের বেশি বিমান ভাড়া নির্ধারণ করা যাবে না।'
ইতোমধ্যে সৌদি সরকার হাজীদের মোয়াল্লেম ফি’র পাশাপাশি বাড়িয়ে দিয়েছে বাড়ি ভাড়াও। এ অবস্থায় বিমান ভাড়াও বেড়ে গেলে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হবে হাজীদের।
হাব-এর চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক পেয়ারু বলেন, 'সৌদি সরকার ৫০০ টাকার মোয়াল্লেম বিল ১৫০০ টাকা করেছে। মক্কায় ২০০০ হাজার টাকা ঘর ভাড়া। এরফলে বাংলাদেশ বিমান যদি এখানে বৃদ্ধি করে তাহলে হাজীদের উপর জুলুম করা হবে।'
হজ্ব যাত্রার অন্তত ছয় মাস আগেই হাজীদের বুকিং নিয়ে নেয় ট্রাভেল এজেন্টগুলো। বুকিংয়ের সময় সরকার নির্ধারিত টাকাও তারা নিয়ে নেয়। সরকার ইতোমধ্যে হাজী প্রতি ৩ লাখ ১৯ হাজার টাকা খরচ নির্ধারণ করে দিয়েছে। কিন্তু নতুন করে বিমান ভাড়া বাড়ানো হলে টাকা বাড়তি ভাড়া পরিশোধে জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে বলে শংকা এ হাব নেতার।  
হাব চট্টগ্রামের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন,'আমরা ইতিমধ্যে গত বছরের বিমান ভাড়া হিসেবে করে ২০১৮ সালের হাজী সংগ্রহ করে ফেলেছি। আর বিমান ভাড়া যদি ১৫-২০ হাজার টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। তাহলে হাজীদের থেকে এই টাকা আদায় করা আমাদের জন্য দুরূহ হবে।'
এবার ১ লাখ ২৭ হাজার হাজী পবিত্র হজ্ব পালনে সৌদি আরব যাওয়ার কথা রয়েছে। আগামী আগষ্ট মাস থেকে শুরু হবে হাজীদের হজ্ব যাত্রা।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop