ksrm

খেলার সময়মাশরাফির আবাহনীর কাছে পাত্তাই পেলো না মোহামেডান

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
হাইভোল্টেজ ম্যাচে পাত্তাই পেল না মোহামেডান। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীর বিপক্ষে ১১২ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে তারা। শুরুতে ব্যাট করে বিজয় ও নাসিরের ফিফটিতে ২৫৯ রান সংগ্রহ করে নাসির হোসেনের দল।
 
জবাব দিতে নেমে মাশরাফি ও মেহেদী মিরাজের বোলিং তোপে মাত্র ১৪৭ রানে গুটিয়ে যায় মোহামেডান। ম্যাচ সেরা হয়েছেন আবাহনীর এনামুল হক বিজয়।
আবাহনী-মোহামেডান চিরবৈরিতার উত্তাপ আর টের পাওয়া যায় না আগের মতো। তবু দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ের আগে অন্যরকম আমেজ থাকে। প্রায়ই সেটি আক্ষেপে রূপ নেয়। তেমনি আরেকটি নিরুত্তাপ ম্যাচের প্রদর্শনী হলো মিরপুরে।
আবাহনীর ২৬০ রানের জবাব দিতে নেমে হুড়মুড়িয়ে ভেঙ্গেছে মোহামেডানের ব্যাটিং লাইনআপ। ভাঙ্গনে নেতৃত্ব দিয়েছেন মাশরাফি-মেহেদী মিরাজ। শামসুর রহমান শুভ, রনি তালুকদাররা কেউই প্রতিরোধ গড়তে পারেননি। ইনফর্ম ইরফান শুক্কুর চেষ্টা করেছিলেন। রকিবুল তাকে সমর্থন দিচ্ছিলেন। তবে ৪০ রান করা ইরফানের বিদায়ের পর ২৮ রান করে ফেরেন রকিবুলও। এর পরেরটুকুতে কেবলই ধসে পড়ার গল্প।
মোহামেডান গুটিয়ে যায় মাত্র ১৪৭ রানে। মাশরাফি নিয়েছেন তিনটি উইকেট। সমান সংখ্যক উইকেট শিকার করেছেন নিদাহাস ট্রফির দলে থাকা মেহেদী মিরাজও। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে সহজ জয়ে শীর্ষস্থান অক্ষুণ্ণই রইলো দলটির।
এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সুবিধা করতে পারেনি আবাহনীও। পরপর দুই ম্যাচে ফিফটি হাঁকানো সাইফ ফেরেন দুই রানে। ইনফর্ম এনামুল বিজয় এদিনও ব্যাট হাতে সফল। ফিফটি হাঁকিয়ে করেছেন ৬৩ রান।
ফিফটি মিসের আক্ষেপ নিয়ে মিথুন ফিরেছেন ৪৭ রান করে। তবে ৬৭ রানের ইনিংস খেলেছেন অধিনায়ক নাসির হোসেন। শেষদিকে মাশরাফির ১৭ বলে ২৬ রানের ঝোড়ো ইনিংসে ২৫৯ রানের সংগ্রহ এনে দেয় আবাহনীকে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop