ksrm

মহানগর সময়নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রেখে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি

কমল দে

fb tw
আন্দোলনের মাধ্যমে নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা রেখে নির্বাচনী প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে বিএনপি। বিশেষ করে দলীয় চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চলমান আন্দোলনে আরো বেশি নেতা-কর্মীর পাশাপাশি সাধারণ জনগণকে সম্পৃক্ত করার কৌশল নিয়েছে দলটি।
যে কারণে গণস্বাক্ষর, মানববন্ধন, লিফলেট বিতরণের মতো অহিংস আন্দোলন চালিয়ে আসছে তারা। সে সাথে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে বার্তা দেয়া হয়েছে ৩০০ আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীদেরও।   
একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রতিটি বিভাগীয় শহরে জনসভার আয়োজন করছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। যেখানে দলীয় সভানেত্রী হিসাবে ভোট চাইছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্র প্রধান বিরোধীদল বিএনপিতে।
 দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে দলীয় চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এখন কারাগারে। দলীয় কর্মকান্ডে সাধারণ নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি জনগণকে সম্পৃক্ত করতে গত ৮ই ফেব্রুয়ারির পর থেকে অহিংস আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে আসছে দলটি। এর মাঝে’ই চলছে নির্বাচনে অংশ নেয়ার প্রস্তুতিও।
 
বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটি  স্থায়ী  কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, 'আন্দোলন চলছে আন্দোলন চলবে, বিএনপি তো প্রস্তুত আছেই, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আমরা আন্দোলনে আমরা থাকব।

বিএনপি’র স্থানীয় নেতাদের দাবি, আন্দোলনের মাধ্যমে রাজপথ দখল এবং নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে বার্তা দেয়া হয়েছে।
নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক, আবুল হাশেম বক্কর বলেন, 'সবদিক থেকে আমরা প্রস্তুত আছি।'
ভারপ্রাপ্ত নগর বিএনপি সভাপতি আবু সুফিয়ান, জনগণের আকাঙ্ক্ষা এই কর্মসূচির মাধ্যমে আমরা কাঙ্ক্ষিত নির্বাচনে যাব।
সম্ভাব্য প্রার্থীরা ইতোমধ্যে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করলেও এখন’ই তা প্রকাশ্যে করতে রাজি নয় বিএনপি। বিশেষ করে দলীয় চেয়ারপার্সনের জামিনে মুক্তি এবং তাঁর নির্বাচনে অংশ নেয়ার নিশ্চয়তার ওপর অনেকাংশে তা নির্ভর করছে বলে জানান বিএনপি’র এ কেন্দ্রীয় নেতা।  

বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম বলেন, আমাদের প্রার্থীরা নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত। তবে বিএনপি খালেদা জিয়াকে ছাড়া কোন নির্বাচনে যাবে না।

২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপি ক্ষমতায় আসলেও ২০০৮ সালের নির্বাচনে করুণ পরাজয় বরণ করতে হয় তাদের। আর ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত সর্বশেষ নির্বাচনে অংশ নেয়নি তারা।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop