ksrm

খেলার সময়ইউরোপা লীগের শীর্ষ আটে এসি মিলান ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
কাঙ্খিত জয় পেয়েছে জায়ান্ট ক্লাবগুলো। রাতে নিজেদের ২য় পর্বের খেলায় এসি মিলানকে ৩-১ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে আর্সেনাল। দীর্ঘ ৮ বছর পর ইউরোপা লিগের শীর্ষ আটে উঠলো ওয়েঙ্গার শিষ্যরা। এদিকে অন্য ম্যাচে লকোমোতিভ মস্কোকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে কোয়ার্টার নিশ্চিত করেছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ।
 
প্রথম পর্বে সান সিরোতে ২-০ গোলে জয়টাই এদিন টনিক হিসেবে কাজ করেছে আর্সেনাল শিবিরে। প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে যদি ২ গোলের জয় নিয়ে ফেরা যায়, তাহলে ঘরের মাঠে তাকে উড়িয়ে দিতে ভাবনা থাকবে কেন ? ওয়েঙ্গার শিষ্যদের মাঝে ছিলোনা তাই কোন দুঃশ্চিন্তাই। উল্টো পিঠে, নিজেদের মাঠে লজ্জার হারের প্রতিশোধ নিতে একটি মিরাকলের আশাতেই এমিরেটসে এসেছিলো বোনুচ্চি-সুসোরা।
লন্ডনে প্রথম গোলটা আসে অতিথিদের পা থেকেই। ৩৫ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে রদ্রিগেজের বাড়ানো বল থেকে দুর্দান্ত শটে স্কোরশিটে নাম লেখান জার্মান মিডফিল্ডার কাহান। এই গোলটাই যেনো কাল হয়ে দাঁড়ায় গাত্তুসো শিষ্যদের জন্য। গোল খেয়ে গানারদের একের পর এক আক্রমণে নাস্তানাবুদ হয়ে পরে ডোন্নারুম্মা।
৩৯ মিনিটে দৃশ্যপটে মাখতারিয়ান। ডি-বক্সের ভেতরে তাকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজায় রেফারি। স্পট কিক থেকে গোল করে গানারদের সমতায় ফেরান ওয়েলবেক। এরপর আর কোন গোল না হওয়ায় ১-১ সমতায় বিরতিতে যায় দু'দল।
বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণের ধার বাড়ায় ওয়েঙ্গার শিষ্যরা। তবে মিলান গোলপোস্টের সামনে যেয়ে ভন্ডুল হতে থাকে সব চেষ্টা। অবশেষে ডেডলক ভাঙ্গে ৭১ মিনিটে, জাকার গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। গোল খেয়ে কিছুটা ঝিমিয়ে পড়ে মিলান। সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেন নি ওয়েলবেক। ৮৬ মিনিটে নিজের ২য় গোলের সঙ্গে কোয়ার্টারটাও নিশ্চিত করে ফেলেন আর্সেনালের জন্য।
রাতের অন্য ম্যাচে লকোমোতিভ মস্কোর আতিথ্য গ্রহণ করে অ্যাতলেটিকো। তবে খেলার শুরু থেকেই স্বাগতিকদের চেপে ধরে তারা। ফলও আসে দ্রুত, ১৬ মিনিটেই কোরার গোলে এগিয়ে যায় স্প্যানিশ ক্লাবটি।
তবে ৪ মিনিট পরেই সিমিওনে শিষ্যদের বোকা বানিয়ে স্কোরশিটে নাম লেখান মস্কোর, রাইবাস। প্রথমার্ধ্বে আর কোন গোল না হলে সমতায় বিরতিতে দু'দল।
ফিরে এসে রুদ্রমূর্তি ধারণ করে সিমিওনে বাহিনী। ৪৭ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন সাউল। ৬৫ ও ৭০ মিনিটে বুড়ো হাড়ের ঝলক দেখান ফার্নান্দো টরেস। ৪-১'এ এগিয়ে থেকেও গোলক্ষুধা মেটেনি রোজি ব্লাঙ্কোদের। ৮৫ মিনিটে কফিনে শেষ পেরেকটা ঠুকে দেন ফরাসি ফরোয়ার্ড আঁতোয়া গ্রিজমেন।
২ পর্ব মিলিয়ে ৮-১ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে শীর্ষ আটে উঠে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop