পশ্চিমবঙ্গজয় নিয়েই দেশে ফিরতে চায় বাংলাদেশ হুইলচেয়ারের ক্রিকেট দল

সুব্রত আচার্য

fb tw
তিনটি টি-টুয়েন্টি ম্যাচ এবং একটি ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নিতে বাংলাদেশের হুইলচেয়ার দল বৃহস্পতিবার রাতে ভারতের পৌছাল। ১ এপ্রিল থেকে মুম্বাইয়ের পুনেতে ভারতের বিপক্ষে তিনটি টি-টুয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলার এই ছেলেরা।  এরপর নেপাল, ভারত ও বাংলাদেশ আয়োজিত ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নেবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ক্রিকেটাররা। ভারতের মাটিতে পা দিয়েই আত্মবিশ্বাসী হুইলচেয়ার দলের সদস্যরা বললেন বাংলাদেশের মানুষের জন্য জয় নিয়ে দেশে ফিরতে চান।
বাংলাদেশ বিমানের বিজি-৯৫ এই ফ্লাইটটি নির্ধারিত সময়ের চেয়ে প্রায় দেড় ঘণ্টা দেরিতে অবতরণ করে কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে। কিন্তু তাতেও কোনও অস্বস্তি দেখা গেলো না বিমান বন্দরে টিমকে স্বাগত জানাতে আসা উৎসুক কলকাতার সাধারণ মানুষের। সেলিব্রেটি ক্রিকেটারদের মতোইকলকাতায় তাদের বরণ করে নিয়েছেন স্থানীয়রা। ক্রিকেটাদের সামনে দাড়িয়ে তুলেছেন সেলফিও। কলকাতায় এই উষ্ণ অভ্যর্থনায় খুশি বাংলাদেশের শারীরিক প্রতিবন্ধী ক্রিকেটাররা।
বাংলাদেশ হুইলচেয়ার দলের অধিনায়ক মহম্মদ মোহসিন বললেন, আমরা জয় নিয়ে দেশে ফেরার প্রত্যাশা রাখি। শারীরিক প্রতিদ্ধকতা সম্পর্কে তার বক্তব্য, আমি কখনো ভাবিনি যে আমার দুটো পায়ে সমস্যা আছে। আমার মনের শক্তিই আমাকে ঘর থেকে বাইরে বের করার সুযোগ করে দিয়েছে। আমাদের মতো যারা আছেন, তাদের বলবো বিশ্বকে দেখতে হবে। ঘরে বসে থাকতে হবে না, ঘর থেকে বাইরে বের হতেই হবে।
সহ-অধিনায়ক নূর নাহিন বলেন, ভারতে এসে দারুণ লাগছে তাদের। তবে ভারত থেকে জয় নিয়ে যেতে পারলেই প্রকৃত আনন্দ পাবেন তারা। শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে জয় করতে হলে মানসিক প্রতিবন্ধকতা কেই আগে সরাতে হবে। পৃথিবী জয় করার আত্মবিশ্বাস নিয়ে নামতে হবে। বললেন- উজ্জ্বল বৈরাগী।
টিম ম্যানেজার মহবুবুর রহমান চৌধুরী পলাশ জানান, ১ এপ্রিল পুনের কলাপুর, ৩ এবং ৪ তারিখে মুম্বাই পুলিশ জিমনাসিয়াম ক্রিকেট গ্রাউন্ড এবং স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামবে হুইলচেয়ার ক্রিকেট দল। এরপর ৭, ৮ এবং ৯ তারিখে ত্রিদেশীয় টি-টুয়েন্টি সিরিজে অংশ নেবে তাদের দলটি।
বিমান বন্দরে স্বাগত জানাতে কলকাতার বেশ কয়েকজন সমাজে সেবী ও সেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। তাদের অন্যতম প্রাণতোষ বন্দ্যোপাধ্যায় ও অধ্যাপক ইমানুল হক। তারা জানান, শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে জয় করার যে মানসিক শক্তি এই ছেলেদের মধ্যে রয়েছে সেটাই সমাজের দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে। সে কারণেই ভারতের তাদের স্বাগত জানাতে এসেছিলেন তারা।
কোচ মহম্মদ মোহিন, টিম ম্যানেজার  মহবুবুর রহমান চৌধুরী পলাশ, টিম লিডার সাদ্দাম হোসেন, নিউটাউন মোল্লা, আশরাফুল ইসলাম, শেলি তাসিমা ফেরদৌস, পরিচালক রিফাত ফারজান নিপুণ এবং ১২ জন হুইলচেয়ার ক্রিকেটার সহ মোট ১৯ জনের দলটি কলকাতায় হয়ে দেশে ফিরবে ১৪ এপ্রিল।
 

 
 
 

 
 
 
 
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop