শিক্ষা সময়‘অন্যের উপদেশ শুনে জীবন নষ্ট করবেন না’

শিক্ষা সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
কাঙ্খিত সাফল্যের পেছনে ছোটে অনেকেই, কিন্তু সাফল্যের স্বাদ সবার চেখে দেখার সুযোগ মেলেনা। অনেকে আবার ব্যর্থতার হতাশায় ডুবে জীবন থেকেই ফিরিয়ে নেন মুখ। কিন্তু জীবনের সিদ্ধান্ত নিজে না নিয়ে অন্যের কথা শুনে মূল্যবান সময় যাদের নষ্ট হয়, তাদের মতো দুর্ভাগা বোধহয় খুব বেশি হয় না।

জীবন নিয়ে অনেকটা এমন দর্শনই পোষণ করেন মার্টিন শাল্ফি। যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অধ্যাপক ২০০৮ সালে জিতেছিলেন রসায়নের নোবেল। আজ বিজ্ঞান বিশ্বে তিনি পরম শ্রদ্ধেয় নাম হলেও একসময় কিন্তু ছিলেন নেহাতই এক স্কুল শিক্ষক! সেখান থেকে নিজের চেষ্টায় কীভাবে ঘুরিয়ে দিলেন ভাগ্যের চাকা, সেই গল্পই তিনি শোনান নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির চলতি বছরের সমাবর্তনে।    
সময় নিউজের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো তার বক্তব্যের চুম্বক অংশ। অনুবাদ করেছেন নুরশাদ জাহান।
সমার্বতন এমন একটি উপলক্ষ, যেদিন হয়ত আপনারা সবাই উপদশের্পূণ ভারী ভারী বক্তৃতা আশা করছেন। কিন্তু আমার উপদশে আপনাদের জীবন পথে কাজে লাগবে এমনটা ভাবা ভুল হব। প্রত্যকের জীবনের সমস্যা সতন্ত্র, তেমনি ভাবে তার সমাধানও সতন্ত্র হওয়া উচতি। আমি আজকে উপদশেমূলক কোনো কথা বলতে আসিনি। আমার শুধু আমার জীবনের অভিজ্ঞতা জানাতে চাই। হয়ত আপনাদরে কারও জীবনের জন্য গুরুত্বর্পূণ নাও হতে পার। নিঃসন্দেহে আপনাদরে জন্য কোনো উপদশে নেই আমার কাছ। 
তাই বলে যে মতামত দিতে পারবো না তা কিন্তু নয়। একজন বিজ্ঞানী হিসেবে আমি বারবার আমার পরীক্ষা নিরীক্ষা করতে ভালবাসি। কেননা, প্রথমবার প্রাপ্ত ফল মূলত একটি গতানুগতিক র্অথ বহন করে, যা দিয়ে আদতে কোনো সিদ্ধান্তে আসা যায়না।  
কিন্তু জীবনের ক্ষেত্রে এমনটি করলে লাভের চেয়ে ক্ষতি বেশি হয়। জীবন এমন একটি সমীকরণ, যেখানে একবার সময়ক্ষপেণ হলে আর সেই ভুল শুদ্ধ করার সময় নইে। বারবার এক্সপরেমিন্ট করে দেখার সময় নেই যে আমার জন্য কোন রাস্তাটি সঠিক। আমাদের মনে রাখা দরকার, যা আমি পারি তা দিয়েই আমি সমাজের কাজে আসতে পার।
আমাকে কেউ বলে দিলেই আমি সেই পথইে চলবো আর সফল হব- সেটা সঠিক নয়। এটা আমার ব্যক্তিগত মতামত। 
আপনাদরে অনেকের মতই আমিও আমার পরবিাররে প্রথম ব্যক্তি যে কিনা স্কুলরে গন্ডি পেরিয়ে কলেজ পর্যন্ত গিয়েছিলাম। আমার বলতে কোন বাধা নেই যে, আমার বাবা কখনোই হাই স্কুলের পাঠ শেষ করতে পারেননি। আমার মাকে পারিবারিক অসচ্ছ্বলতার জন্য  কলেজ ছেড়ে দিতে হয়েছিলো। কিন্তু তাদের এই অর্পূণতার ছায়া আমার উপর পড়তে দেনন। হাজারও অভাবের ভেতরেও আমার বাবা মাকে আমার লেখাপড়ার ব্যাপারে কখনো র্কাপণ্য করতে দেখিনি। 
আমার বিজ্ঞান বিষয়ে খুব আগ্রহ ছিল। কলেজে তৃতীয় বর্ষে থাকাকালীন আমি গবষেণা করার সুযোগ পাই। কিন্তু খুব খারাপ ভাবে ব্যর্থ হয়েছিলাম তখন। বারবার চেষ্টার পরও যখন সাফল্যের মুখ দেখতে পেলাম না, তখন হাল ছেড়ে দিলাম। নিজের আকুল ইচ্ছার বিসর্জন দিলাম। তখন সেই সুযোগে অনেকেই বলেছিলো আমাকে দিয়ে এসব হবেনা। আমিও ধরেই নিয়েছিলাম গবষেণা আমার জন্য নয়। 
জীবনবিমুখ হয়ে পড়লাম। সংশ্লষ্টিতাবিহীন অনকে চাকরি করেছি। কয়েক বছর এভাবেই কেটে গিয়েছিলো। হাইস্কুলের শিক্ষক হিসেবে কেটে যাচ্ছিলো দিন। একবার গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে আমার এক সহর্কমী আমাকে গবষেণা করার সুযোগ করে দিলেন। উনার একজন বন্ধুর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে গেলাম। গবষেণা বলতে আসলে কি বোঝায় আমি তখনি জানলাম। বারবার ব্যর্থ হয়েও নিজের অধ্যবসায় দিয়ে চেষ্টা চালিয়ে যেতে হয়। প্রতিষ্ঠিত  বিজ্ঞানীরাও এভাবেই গবষেণা করে থাকেন। ভুল থাকলে শিক্ষা নিয়ে অনেক বড় সাফল্য পাওয়া যায়। 
আরো একটা ব্যাপার  বুঝতে পারলাম, একা একাই সব সমস্যা সমাধান করা যায়না। সহর্কমীদরে কাছে জানতে চাওয়া এক্ষেত্রে অনেক ভূমিকা রাখতে পারে। বারবার প্রশ্ন করার অভ্যাস গড়ে তোলার কারণে আমার ভুলগুলো শুধরে যেতে লাগলো। আমি আমার গবষণায় সফলতার মুখ দেখতে শুরু করলাম। 
সেই দিনের সকালটা আমি আর আমার স্ত্রী দুজনেই বিশ্বাস করতে পারছলিাম না। ঘুম থেবে উঠে জানতে পারলাম যে আমি নোবল পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছি। 
জীবন নিয়ে অনকের চেয়ে আমার র্দশন খুব ভিন্ন। আমি অনেকের কথা শুনে জীবনের অনেক মূল্যবান সময় হারিয়েছি। ফলে দেরিতে হলেও আমি আমার গবষেণালব্ধ জ্ঞান দিয়ে সমাজের জন্য কিছু একটা করতে পেরেছি। এটাই আমার জীবনরে র্স্বাথকতা। 
এজন্যই আমি বিশ্বাস করি আমাদের জীবন হচ্ছে ইংরেজি "এন" আর "১"। একবারই পাওয়া যায়।  তাই এই একবার পাওয়া জীবন অন্যের উপদশে শুনে ব্যর্থ করাটা নিরর্থক। ব্যর্থ হলেও কারও উপদশে শুনবনে না। নিজেই নিজের সিদ্ধান্ত নিয়ে তার পেছনে লেগে থাকলে সাফল্য আসবেই। 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop