খেলার সময়বিজয়ী হয়েই দেশে ফিরছে বাংলাদেশ হুইলচেয়ার ক্রিকেট দল

সুব্রত আচার্য

fb tw
somoy
আন্তর্জাতিক ত্রিদেশীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে ফিরছে সোনার ছেলেরা। মুম্বাই ও উত্তরাখণ্ডে ভারত ও নেপাল কে হারিয়ে বিজয়ী বাংলাদেশের হুইলচেয়ার ক্রিকেট দল নববর্ষের সকালে কলকাতা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হবে।  বৃহস্পতিবার দুপুরে ডাউন বাগ এক্সপ্রেসে উত্তরাখণ্ড থেকে হাওড়া স্টেশনে পৌঁছানোর আগেই সেখানে বিজয়ী বাংলাদেশি হুইলচেয়ার ক্রিকেট দলের সদস্যদের বরণ করে নিতে উৎসুক মানুষের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।
সাধারণ মানুষের পাশাপাশি স্বাগত জানাতে সেখানে ছুটে গিয়েছিলেন রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী লক্ষী রতন শুক্লা, পূর্ব রেলের ডি আর এম মনু গোয়েল ও হাওড়া পৌর এলাকার জনপ্রতিনিধিরা। ফুল ও মিষ্টি খাইয়ে লাল-সবুজের সৈনিকদের অভিনন্দন জানান তারা।
সেখানে তিনি বলেন, আমাদের খুব ভাল লাগছে। বাংলাদেশ আমার খুব কাছের জায়গা। আমরা সবাই আজ এখানে এসেছি। ডিআরএম সাহেবও নিজে এসেছেন খেলোয়াড়দের স্বাগত জানাতে। স্থানীয় মানুষও আছেন। খেলা সবাইকে যুক্ত করে। খেলা এমন একটা জিনিশি সবাইকেই একসাথে নিয়ে চলে। একসাথে চলার মানেই খেলা। সব খেলার সেরা হচ্ছে খেলা। তাই বাংলাদেশের প্রত্যেক বন্ধুকে আমরা স্বাগত জানালাম।  তারা আমাদের অনুপ্রেরণা। যেখানে তারা জীবনের সঙ্গে লড়ছেন, সেটা আমাদের সবাই অনুপ্রেরণা।
পশ্চিমবঙ্গের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, অনেক মানুষের কাছে দুই হাত দুই পা সব কিছুই থাকে। কিন্তু বুদ্ধি থাকে না ভাল কাজ করার। কিন্তু তাদের কাছে হয়তো শরীরের কোনও অঙ্গ নেই। কিন্তু ওদের কাছে শক্তি আছে, বুদ্ধি আছে, জ্ঞান আছে। লোকেদের সম্মান করার জায়গা আছে। সেই জিনিষটা আমারা স্যালুট করি।
ভারতীয় পূর্ব রেলের ডিভিশনাল ম্যানেজার আর এম মনু গোয়েল বলেন, আমার খুব ভাল লাগছে। কেননা এই খেলোয়াড় গুলো শুধুই শক্তিশালী নন, আমাদের দেশে তারা অতিথিও। আর ভারতীয় রেলের অতিথি, কারণ তারা ভারতের রেলে চড়েই এসেছেন।
বাংলাদেশ হুইলচেয়ার ক্রিকেট দল অধিনায়ক মহম্মদ মহসিন হাওড়া স্টেশনের অভ্যর্থনায় অভিভূত। তিনি বললেন, মুম্বাই ও কলাপুরে দুটা ম্যাচ ছিল সেখানে আমরা ভারতে হারিয়ে দুই-একে সিরিজ জয় করি। আর অসম্ভব ভাল লাগছে।  পরপর দুটো সিরিজ জিততে পেরেছি। সেটা আসলে ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। অসাধারণ একটা অনুভূতি।
প্রায় দশ হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে আমাদের টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে আমারা সাপোর্টও ভাল পেয়েছি। এতো দর্শকদের মধ্যে আমরা আগে কখনো খেলিনি।
২০ সদস্য বশিষ্ঠ বাংলাদেশ হুইলচেয়ার ক্রিকেট দলটি ২৯ মার্চ কলকাতায় পৌছায়। একদিন বিশ্রামের পর ৩০ তারিখ মহারাষ্ট্রের কলাপুরের উদ্দেশ্যে কলকাতা ত্যাগ করে। ১ এপ্রিল ভারতের সঙ্গে টি-টুয়েন্টি ম্যাচে এক রানের জন্য হেরে গেলেও মুম্বাইয়েই পরের দুটি ম্যাচে ভারতকে পরাজিত করে তারা। এবং একই ভাবে উত্তরাখণ্ডের রুদ্র-পুরে ভারত-নেপাল-বাংলাদেশ এই ত্রিদেশীয় সিরিজে দুটি ম্যাচ জয় পেয়ে ভারতের সঙ্গে ফাইনালে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ভারতকে ৩৬ রানে পরাজিত করে দেশে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছে সোনার বাংলার ছেলেরা। #কলকাতা অফিস
 
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop