বাণিজ্য সময়জমে উঠেছে নারায়ণগঞ্জের জামদানি পল্লী

বাণিজ্য সময় ডেস্ক

fb tw
নানা রঙের নিত্য নতুন ডিজাইনের ঐতিহ্যবাহী জামদানি বুনছেন নারায়ণগঞ্জের জামদানি পল্লীর তাঁতিরা। এবারের ঈদে ৫ কোটি টাকার বেচাকেনার প্রত্যাশা তাদের। তবে, ভারতের নিম্নমানের শাড়ির প্রভাবে ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ কারখানা মালিকদের। অবশ্য, জামদানি শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে সবধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।
ঈদকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের জামদানি পল্লীতে পুরোদমে চলছে শাড়ি বুননের কাজ। প্রতিটি কারখানায় রাত-দিন কাজ করছেন জামদানি কারিগররা। ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী নানা রঙের নিত্য নতুন ডিজাইনের জামদানি বুনছেন তারা। তবে জামদানি কারিগরদের অভিযোগ, ন্যায্য পারিশ্রমিক পাচ্ছেন না তারা।
ভারতের নিম্নমানের শাড়ির প্রভাবে হাতে-বুনা দেশের ঐতিহ্যবাহী জামদানির ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ কারখানা মালিকদের। এ শিল্প রক্ষায় সরকারি পৃষ্ঠপোষকতার দাবি জানান তারা।
ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী বাহারি রঙের ডিজাইনের জামদানি শাড়ির পসরা সাজিয়ে বসেছেন পাইকারি বিক্রেতারা। এবারের ঈদে ৫ কোটি টাকার বেচাকেনার প্রত্যাশা তাদের।
আর জামদানি শিল্পকে আরো বেগবান করতে তাঁতিদের সহযোগিতার পাশাপাশি স্বল্প সুদে ঋণ ব্যবস্থার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।
জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া বলেন, 'ঋণ গ্রহণে কোন ব্যবসায়ী যদি আগ্রহী হয়, তাহলে তারা আমার সঙ্গেও দেখা করতে পারে। আমি সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোর সঙ্গে পরিচয় করে দিয়ে যত কম সুদে ঋণ দেয়া যায় তার সকল চেষ্টা করবো।'
রূপগঞ্জের জামদানি পল্লীতে ৩ শতাধিক কারখানায় কাজ করেন প্রায় ২ হাজার কারিগর।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop