ksrm

পশ্চিমবঙ্গআবারও ফেসবুকে লাইভ করে আত্মহত্যা

কলকাতা অফিস

fb tw
somoy
আবারও একটি সামাজিক মাধ্যমে "লাইভ' করে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার রাতের এই ঘটনায় রাজ্যটির মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।
এর আগে একইভাবে কলকাতার লাগোয়া দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার সোনারপুর এলাকাতে এই ধরণের একটি আত্মহননের ঘটনা ঘটেছিল। যা নিয়েও রীতিমত আলোচনার জন্ম-দিয়েছিল সর্বত্র।
শিলিগুড়ি পৌরসভার এলাকার ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব বিবেকানন্দপল্লির একটি বাড়িতে একাই ভাড়ায় থাকতেন অরিন্দম দত্ত। তার পরিবার থাকে জলপাইগুড়িতে। শনিবার রাতে খেলা চলার সময় হঠাৎ তার ফেসবুকের লাইভ শুরু হয়। কিছু সময় অন্ধকার দেখা যাচ্ছিল স্ক্রিন। এরপর দেখা যায়, সেলিংফ্যানের সঙ্গে দড়ি বেধে ঝুলে পড়ছেন তিনি।
কিছুক্ষণ পর লাইভ বন্ধ হয়ে যায়। আত্মহত্যার লাইভ দেখে অনেক পরিচিত ব্যক্তিরা তখন তার ফোনে ফোনও করেছিলেন। সকালে পুলিশ গিয়ে তার ঘর থেকে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে। খবর পেয়ে সকালেই পৌঁছান জলপাইগুড়ির অরিন্দমের পরিবারের সদস্যরা।
শিলিগুড়ির স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে কলকাতার কিছু গণমাধ্যম এই ঘটনা নিয়ে জানাচ্ছে, আত্মহত্যাকারী ব্যক্তি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। আর সে কারণেই তিনি ছিলেন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। এই কারণেই এমন আত্মহত্যার ঘটনা বলেও মনে করছে পুলিশ।
কলকাতার একজন মনরোগ বিশেষজ্ঞ অনিমা পাত্র জানিয়েছেন, যেভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ধরণের ঘটনা বাড়ছে তাতে রীতিমত উদ্বেগ প্রকাশ ছাড়া আর কিছুই নয়। এটা রুখতে হলে সামাজিক মাধ্যমের ব্যবহার নিয়ে এখনই সচেতনতা তৈরি করার প্রয়োজন।
 
 
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop