শিক্ষা সময়‘কৈশোর তারুণ্যে বই’ আয়োজিত বইমেলার পুরস্কার বিতরণ

শওকত আলী সৈকত

fb tw
বাংলাদেশ শিশু একাডেমির পরিচালক আনজি লিটন শিশু-কিশোরদেরকে বই পড়ার প্রতি তাগিদ দিয়ে বলেছেন, ‘বই পড়ার প্রতি মনোযোগ এবং অভ্যাস নিজেকেই তৈরী করে নিতে হবে। কারণ একমাত্র বই-ই পারে জীবনকে গঠন করতে। বই নিজস্ব শব্দ, ভাষা ও বাক্য সৃজন করতে সহায়তা করে। চিন্তা শক্তিকে কাজে লাগাতে হলে বই কেনা ও পড়ার বিকল্প নেই।’
শনিবার(২৮ জুলাই) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজে ‘কৈশোর তারুণ্যে বই’ আয়োজিত চারদিন ব্যাপী বই মেলার সমাপনী ও শিক্ষার্থীদের রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের কোনো বিদ্যালয়ে কবিগুরু বরীন্দ্রনাথা ঠাকুরের পা পড়েনি। শুধুমাত্র নারায়ণগঞ্জ হাইস্কুলে তিনি পা রেখেছেন। এটা এই স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য অত্যন্ত গৌরবের ব্যপার। সেই গৌরব ধরে রাখতে হলে রবীন্দ্র চেতনা লালন করতে হবে।' তিনি বলেন, ‘নিজের দেশকে জানতে হলে, বিশ্বকে জানতে হলে বেশি বেশি বই পড়তে হবে।’ তাই বইয়ের প্রতি ভালোবাসা সৃষ্টি করে বই পড়া চর্চা বাড়ানোর জন্য শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দেন তিনি।  
তিনি বলেন, ‘সারা দেশে স্কুল লাইব্রেরিগুলোকে সমৃদ্ধ করতে শিশু একাডেমির মাধ্যমে প্রতিটি স্কুলে বই ও সেলফ প্রদান করা হবে। সেই লক্ষে শিশু একাডেমি এরই মধ্যে স্কুলভিত্তিক কার্যক্রম শুরু করেছে। গ্রামের স্কুলগুলোতেও এই কার্যক্রম চলবে।’
নারায়ণগঞ্জ হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ কমল কান্তি সাহার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সময় টেলিভিশনের বার্তা প্রধান ও পরিচালক তুষার আবদুল্লাহ, আ্যডর্ন পাবলিকেশনের প্রকাশক ও সম্পাদক সৈয়দ জাকির হোসাইন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ কাশেম জামাল এবং বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য আবদুস সালাম।
বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য আবদুস সালাম স্কুল লাইব্রেরির জন্য এই বইমেলা থেকে এক লাখ টাকার বই কেনার ঘোষণা দেন। পাশাপাশি মেলার আয়োজক কর্তৃপক্ষ ৩০ শতাংশ মূল্য ছাড় দিলেও শিক্ষানুরাগী কাশেম জামাল নিজের পক্ষ থেকে আরো ২০ শতাংশ ছাড় দেয়ার ঘোষণা দেন। এতে সর্বমোট ৫০ শতাংশ ছাড় পেয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই কেনার প্রতি উৎসাহ উদ্দীপনা দ্বিগুণ বেড়ে যায়।
আলোচনা সভা শেষে কৈশোর তারুণ্যে বই আয়োজিত ‘আমার বাংলাদেশ’ বিষয়ক রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ী ১২ জনকে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে অতিথিদের শুভেচ্ছা ক্রেস্ট উপহার দেয়া হয়। চার দিনব্যাপী এ বই মেলায় বই কেনার প্রতি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া মিলেছে। সমাপনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হলেও চার দিনব্যাপী এ বই মেলা চলবে আগামী ২৯ জুলাই রোববার বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop