পশ্চিমবঙ্গপ্রকাশ রাজ বললেন, ‘নরেন্দ্র মোদী অভিনয় করেন’

কলকাতা অফিস

fb tw
somoy
শুধু দক্ষিনী অভিনেতা বললে ভুল বলা হবে। ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা হিসেবে, আরো পরিষ্কার করে বললে- খল চরিত্রের প্রতিথযশা অভিনেতা প্রকাশ রাজ আবারও  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করেছেন। তার ভাষায়, ‘প্রধানমন্ত্রী অভিনয় করেন। অভিনয় করা তার পেশা।’
প্রসঙ্গত, বামপন্থী সেলিব্রেটি হিসেবেও পরিচিত প্রকাশ রাজ।
শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) কলকাতার পার্শ্ববর্তী হুগলি জেলার ডানকুনি বাণিজ্যিক এলাকায় বামপন্থীদের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন। 
আর সেখানে বিজেপি সরকারের ‘মুখ’ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নীতির সমালোচনা করেছেন তিনি। প্রকাশ রাজ বলেন, ‘প্রশ্ন করলেই এখন দেশদ্রোহী তকমা লাগানো হচ্ছে। তবুও আমি প্রশ্ন করা থামাবো না।’ 
তিনি এখানে পরিস্কার পরিসংখ্যান দিয়ে বলেন, ‘দেশের অধিকাংশ মানুষ কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত নন, তবে কি তাদের মতামতের কোনো মূল্য নেই।’ 
মোদী সরকারের দিকে পরিষ্কার প্রশ্ন তুলে প্রকাশ রাজ বলেন, ‘সাংবাদিকদের হত্যা করা হচ্ছে। কিন্তু সরকার চুপ। অরাজক পরিস্থিতি চারদিকে । বিজেপি নেতৃত্ব দেশ জুড়ে দমন-পীড়ন নীতি চলাচ্ছেন।’
প্রকাশ রাজ প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ড. মনমহোন সিংয়ের সঙ্গে তুলনা করে কার্যত খোঁচা দেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। তিনি বলেন, ‘অনেকেই জানতেন আগের প্রধানমন্ত্রী সাইলেন্ট থাকতেন। চুপ থাকাটা তার চরিত্রের মধ্যে ছিল। তবে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী চুপ করে থাকা খুবই বিপজ্জনক। কারণ তখন তিনি অভিনয় করেন। অভিনয় করা প্রধানমন্ত্রীর পেশা।’ 
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে কুক্ষিগত করার অভিযোগ করেন প্রকাশ রাজ। বলেন, ‘বর্তমানে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে খবরের কাগজে প্রকাশিত খবর বিশ্বাস করতে ভয় লাগে।  খবরের চ্যানেলও বিশ্বাসযোগ্য নয়। সংবাদমাধ্যমকে ব্যবহার করে সত্যকে মিথ্য এবং মিথ্যাকে সত্য বলে প্রকাশ করা হচ্ছে। ক্রমাগত মানুষের মগজ ধোলাই করার চেষ্টা করা হচ্ছে।’ 
মোদী সরকারের জি এস টি (গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস টেক্স) নীতি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন খল-নায়ক প্রকাশ। বলেন, ‘জিএসটি কী? হঠাৎ করেই কেন এই জিএসটি চাপানো হলো। এরই মধ্যে ২০০ বারের বেশি জিএসটির নিয়মনীতি সংশোধন করা হয়েছে।’ 
প্রকাশ রাজ বড়সড় প্রশ্ন করে বলেন, ‘এই সরকারের সময় কালো টাকারই বা কি হয়েছে? কোনো উত্তর বিজেপি সরকার দিয়েছে- আপনারা পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে এসবের পরিষ্কার ব্যাখ্যা?’
বামপন্থী যুব সংগঠন ডিওইএফআই এর ১৮তম রাজ্য সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠান ছিল এদিন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ডিওয়াইএফআইয়ের সর্ব-ভারতীয় সভাপতি মহম্মদ রিয়াজ এবং সম্পাদক অভয় মুখার্জি। এছাড়াও ওই সভায় ছিলেন বর্ষিয়ান বাম নেতা দেবব্রত ঘোষ, সুদর্শণ রায় চৌধুরী। 
 
 
 
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop