মহানগর সময়নারায়ণগঞ্জে বিআইডব্লিউটিসি’তে নিয়োগপ্রাপ্তদের থেকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ

শওকত আলী সৈকত

fb tw
somoy
নারায়ণগঞ্জে নিয়োগপ্রাপ্ত প্রায় চারশত কর্মচারীর কাছ থেকে টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) ডেপুটি পার্সোনেল ম্যানেজার (বহর) এর কার্যালয়ের একাধিক কর্মকর্তা ও বিআইডব্লিউটিসির শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে।
তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বেতন বই এর জন্য প্রত্যেকের থেকে ১২০০ টাকা করে নেয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরের আমলাপাড়াস্থ বিআইডব্লিউটিসির ডেপুটি পার্সোনেল ম্যানেজার (বহর) এর কার্যালয়ে গিয়ে এই প্রতিবেদক এমন অভিযোগ পান।
নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মচারীরা অভিযোগ করেন, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) ডেপুটি পার্সোনেল ম্যানেজার (বহর) পি.এম আলম, বিআইডব্লিউটিসি ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের একাংশের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. মহসিন ভূঁইয়া, কেরানি আমিন, বিউটি আক্তার ও সহকারী নির্বাহী নূরুল আমিনের নেতৃত্বে এভাবে টাকা আদায় করা হচ্ছে।
নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মচারীরা জানান, সম্প্রতি বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশনে (বিআইডব্লিউটিসি) প্রায় ৪০০ জন কর্মচারীকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ওই নিয়োগের সময়েও বাণিজ্য করেছেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সিবিএ নেতারা। মঙ্গলবার সকালে নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মচারীরা বহর কার্যালয়ে এসে দেখতে পান তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে বেতন বইয়ের জন্য ১২০০ টাকা করে নেয়া হচ্ছে।  
নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক নিয়োগ প্রাপ্ত এক কর্মচারী জানান, এখানে ডেকে কিভাবে কাজ করবো সে বিষয়ে কথা বলছে এবং বেতন বই এর জন্য প্রত্যেকের থেকে ১২০০টাকা করে নেওয়া হয়েছে। তবে টাকার কোনো রশিদ বা বেতন বই কিছুই দেওয়া হয়নি। বলেছে দুই তিন দিন পর ডেকে বই দেওয়া হবে।
অপর এক কর্মচারী জানান, আমাদের প্রথমে বলা হয় নাই যে, বেতন বই এর জন্য টাকা নেওয়া হবে। এখানে আসার পর জানতে পারি ১২০০ টাকা দেওয়া লাগবে। কিন্তু টাকা তো আনি নাই। তাই কোনো কাজ করতে পারি নাই।
শ্রমিকদের থেকে টাকা নেয়া প্রসঙ্গে সরাসরি কোনো কথা বলতে রাজি হননি বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) ডেপুটি পার্সোনেল ম্যানেজার (বহর) পি.এম আলম। পরে তার মুঠোফোনেও একাধিকবার কল করা হলে তিনি কল রিসিভ করেননি।
তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন কার্যালয়ের পার্সোনেল অফিসারে (বহর) দপ্তর নারায়ণগঞ্জের কর্মকর্তা আব্দুর রউফ। তিনি জানান, তারা (নিয়োগ প্রাপ্ত কর্মচারীরা) এখানে শুধু অফিস দেখতে ও অফিসের লোকদের সাথে পরিচিত হতে এসেছে। এখানে কোনো ধরনের টাকা আদায় করা হচ্ছে না বা কেউ টাকা আদায় করছে এমন অভিযোগও আমাদের কাছে আসেনি।
শ্রমিক নেতার কার্যালযে আসা প্রসঙ্গে তিনি জানান, শ্রমিক নেতা এখানে এসেছেন পরিবেশ দেখতে। শ্রমিকদের সুবিধা-অসুবিধা দেখতে এবং তাদের সাথে কথা বলতে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop