মহানগর সময়চারুকলায় খেজুর রসের স্বাদ পেল ঢাকাবাসী

রাশেদ বাপ্পী

fb tw
কুয়াশা ভেজা শীতের সকালে খেজুর রসের স্বাদ নেয়ার সুযোগ মেলে না ইটকাঠের মহানগরীতে। তবে আজকের সকাল বয়ে এনেছিল সে সুযোগ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায় ছুটির সকালে এমন আয়োজন উপভোগ করেন ঢাকাবাসী। 
পূব আকাশে সূর্য উঁকি দিলেও গাছের পাতা তখনো মাঘের কুয়াশা মুড়িয়ে শীতঘুমে। কাঁধে মাটির হাড়ি আর চোখেমুখে রাজ্যের ব্যস্ততা। সূর্যের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ছু্টে চলেছেন গাছি। যত দ্রুত সম্ভব পৌঁছাতে হবে নির্দিষ্ট গন্তব্যে।
শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলায় দেখা মিলল এমন গ্রামীণ ঐতিহ্যের। লোক-গবেষণাধর্মী সংগঠন ‘রঙ্গে ভরা বঙ্গের’ উদ্যোগে অষ্টম ‘রস উৎসবে’ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ছুটে আসেন নগরবাসী। মাটির গ্লাসে রস আর শুকনো পাতার বাটিতে খেজুরের গুড়, খৈ আর মুড়ি খেতে খেতে গালগল্পে মেতে ওঠেন অনেকেই।
দর্শনার্থীরা বলেন, এই উৎসবের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের কাছে গ্রাম-বাংলার সংস্কৃতিকে পৌঁছে দেয়া সম্ভব হচ্ছে।
গ্রাম বাংলার চিরায়ত এসব দৃশ্য অভিভাবকের কাছে যতটা চেনা ঠিক ততটাই অচেনা শহুরে প্রজন্মের প্রতিনিধিদের কাছে। তারা অনেকেই এর আগে কখনো খেজুরের রস খাননি বলেও জানান। 
খেজুর রসের মিষ্টত্ব আরো বাড়িয়েছে গ্রামীণ শিল্পীদের পরিবেশনা। ঐতিহাসিক মনসা মঙ্গলের বেহুলার ভাসান অংশটুকু পরিবেশন করেন টাঙ্গাইলের অর্জুনার খোকামণ্ডলের নাচারির দল।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখাতরুজ্জামান বলেন, ‘অভিভাবকরা যেন তাদের সন্তানদের গ্রামীণ বিভিন্ন সংস্কৃতিক ঐতিহ্যের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন।’
‘রঙ্গে ভরা বঙ্গে’র পরিচালক ইমরান উজ-জামান বলেন, ‘আমাদের মূল উদ্দেশ্য হলো রসপ্রিয় বাঙালির রসবোধকে জাগিয়ে রাখা।’ 
আয়োজকদের বিশ্বাস, যে কোনো সঙ্কট উত্তরণের পথ বদলে দিতে পারে বাঙালির চিরায়ত রসবোধ।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop