মহানগর সময়জমি দখলের নিউজকে ছোট চিন্তার সাংবাদিকতা বললেন রেলমন্ত্রী

নাজমুস সালেহী

fb tw
রাজধানীর শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনির ২৫ একর জমির ৮০ শতাংশই দখল হয়ে গেছে। কর্মচারী ভবনের গা ঘেঁষেই অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে হাজার খানেক বস্তিঘর, শত শত বাণিজ্যিক দোকানপাট, ভ্যান রিকশার গ্যারেজ। ফলে কলোনির পরিধি সংকীর্ণ হতে হতে এক ঘিঞ্জি বস্তিতে পরিণত হয়েছে। কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ কলোনি বহিরাগতদের দখলে চলে যাওয়ায়, বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে জানিয়ে কলোনি উদ্ধারের দাবি বসবাসকারীদের।
এ রেল কলোনির অলিগলি, রাস্তা, বাসার প্রবেশমুখসহ দখল করতে বাদ নেই কোনো জায়গা। কর্মচারী ভবনের গা ঘেঁষে সামনে পেছনে গড়ে উঠেছে শত শত স্থায়ী দোকানপাট। এগুলোর গ্যাস, বিদ্যুতের সংযোগও সরকারি, যা নিয়ন্ত্রণ করে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। ফলে যেন নিজ বাসাতেই পরবাসী বরাদ্দ পাওয়া রেল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
এক দোকানি বলেন, 'দোকান আমি ভাড়া নিয়েছি। মালিক দূরে থাকে।'
অপর এক দোকানি বলেন, 'অন্যরা যেভাবে দোকান ভাড়া নিয়েছে আমিও সেভাবেই ভাড়া নিয়েছি।'
শুধু এখানেই শেষ নয়, বসতঘরের সাথে দখলদাররা গড়ে তুলেছেন পঞ্চাশের অধিক রিকশা, ভ্যান ও মোটর গ্যারেজ। আছে ভাঙাড়ির ব্যাবসা। যে যেভাবে পেরেছেন দখল নিয়ে গড়েছে হাজার খানেক বস্তিঘর। সরকারি গ্যাস বিদ্যুৎ বলে, অন্য বস্তির চেয়ে ভাড়াও বেশী এখানে। ত্রিশ-চল্লিশটি ক্লাব সমিতির নামে দখল করা হয়েছে কলোনির জমি।
ঘর ভাড়া নেয়া এক নারী বলেন, 'প্রতি মাসে আমরা ৩ হাজার টাকা ভাড়া দেই। একজন আছে লাট মিয়া। ওনাকে ভাড়া দেই।'
তবে স্থানীয়রা বলছেন, ‘এমন একটা জায়গা নেই সেখানে বস্তি ঘর নাই। এখানে নেশা করে, এখানে প্যাথেডিন নেয়। সবকিছু এখানে হয়।’
কলোনি জুড়ে বহিরাগতদের অবাধ দখল আর অবাধ নিয়ন্ত্রণে অরক্ষিত হয়ে পড়েছে কলোনি। চলছে নানা ধরনের অপরাধ। তাই দখল হওয়া জমি উদ্ধারের দাবি শ্রমিক নেতাদের।
নেতারা বলছেন, রাস্তা-ঘাটে সমস্যা হচ্ছে। বৃষ্টি হলে পানি জমে যায় দখলের কারণে। এখন এই মুহূর্তে এটা উচ্ছেদ করা উচিৎ।
কলোনির জমি দখলের বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে গেলে, রেগে যান রেলপথমন্ত্রী।
রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন উল্টো সাংবাদিককে প্রশ্ন করে বলেন, ‘এই ডিমান্ড আপনি করছেন কেন? এই ডিমান্ড করার কথা ওখানে আমার রেলের যেসব লোকজন আছে তাদের। আপনি এই খবর নিয়ে, হোয়াট ইজ ইওর পারপাস? এ ধরনের সাংবাদিকতা খুব ছোট চিন্তার।’
১০৮টি চারতলা ভবনে প্রায় আড়াই হাজার রেল কর্মকর্তা-কর্মচারী পরিবার বসবাস করেন শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনিতে। 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop