ksrm
omarket24 odhikarnews sonargaonuniversity niet

প্রবাসে সময় মালয়েশিয়ায় গ্রেফতার আতঙ্কে প্রবাসী বাংলাদেশিরা

fb tw gp
মালয়েশিয়ায় গ্রেফতার আতঙ্কে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বৈধ-অবৈধ প্রবাসী বাংলাদেশিরা। প্রতিদিনই তাদের তাড়া করছে ইমিগ্রেশন পুলিশ। বাসা, কারখানায়, শপিংমল এমনকি বন-জঙ্গলেও দিনরাত চলছে সাঁড়াশি অভিযান। এতে আটক হচ্ছেন বৈধ প্রবাসীরাও।  
 
মালয়েশিয়ায় বসবাসের বৈধ কাগজপত্র থাকার পরও প্রতিনিয়ত আটক হচ্ছেন বহু প্রবাসী বাংলাদেশি। বর্তমানে মালয়েশিয়ায় আউটসোর্সিং কোম্পানির এপ্রুভাল বন্ধ থাকায় নামবিহীন দালালের মাধ্যমে বৈধ হয়ে অন্যত্র কাজের মধ্যেই জেলে যেতে হচ্ছে তাদের। দেশটির আইন অনুযায়ী, যে মালিকের নামে ভিসা করা হয়, সেই মালিক ব্যতীত অন্যত্র কাজ করলে তাদেরকে অবৈধ হিসেবে গণ্য করা হয়। আর তাই চলমান অভিযানে আতঙ্কে ভুগছেন প্রবাসী শ্রমিকরা। পুলিশের চোখ এড়াতে কেউ কেউ রাত যাপন করছেন বন-জঙ্গলে।
একজন শ্রমিক বলেন, সাধারণ প্রবাসী যারা আছেন তারা খুবই আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন।
আরেকজন বলেন, এখনি হয়ত একটা এম্বুলেন্সের শব্দ শুনলাম সঙ্গে সঙ্গে ঝাঁপ দিয়ে থালাবাটি ফেলে উঠে গেলাম।
 
এর মধ্যেই অভিযোগ উঠেছে, হাজার হাজার রিঙ্গিত লেভি ফি জমা দিয়েও কাঙ্ক্ষিত ভিসা স্টিকার পাচ্ছেন না শ্রমিকরা।
তবে এ বিষয়ে মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশনে যোগাযোগ করা হলে অভিযোগ অস্বীকার করেন শ্রম কাউন্সিলর।
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর জহিরুল ইসলাম বলেন, এদের ভিসা কী কারণে হচ্ছে না সেটা যাদের কাছে টাকা জমা দিয়েছে তারা বলতে পারবে।
মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অবৈধদের বৈধতায় ঘোষিত সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ শেষ হয় গত বছরের ৩০ জুন। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে মাই-ইজি, ভুক্তি মেঘা ও ইমান এই তিনটি ভেন্ডরে প্রায় সাড়ে ৫ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি নিবন্ধিত হন। তার মধ্যে ২ লাখ কর্মী ভিসা পেলেও বিভিন্ন কারণে বাদ পড়ে যায় প্রায় সাড়ে ৩ লাখ প্রবাসী।
মালয়েশিয়ায় বৈধভাবে বসবাস করছেন ১২ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন জায়গায় অভিযানে আটক করা হয় প্রায় ৩৫ হাজার অবৈধ অভিবাসীকে। যাচাই-বাছাই শেষে গ্রেফতার করা হয় বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের প্রায় ১০ হাজার অভিবাসীকে।
দেশের অর্থনীতিতে বছরের পর বছর অবদান রেখে যাচ্ছে এসব রেমিটেন্স যোদ্ধারা, দেশের উন্নয়নের মহাশক্তি রেমিটেন্স যেমন দেশের জন্য প্রয়োজন ঠিক তেমনি রেমিটেন্সযোদ্ধাদের সুযোগ সুবিধাও দেখার দায়িত্ব সংশ্লিষ্টদের। বাংলাদেশ দূতাবাসসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে এসব সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসার দাবি প্রবাসীদের।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
বিশ্বকাপের সময়
GoTop