ধর্মইসলামে ‘এপ্রিল ফুল’ পালন নিষিদ্ধ যে কারণে

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
সমাজে প্রচলিত এ ‘এপ্রিল ফুল’ কালচার বা সংস্কৃতি ইসলামে বিবেক বর্জিত আদর্শহীন অসুস্থ ও অসুন্দর সংস্কৃতি হিসেবে পরিচিত। অন্য হিসেবে স্পেনে মুসলিম নিধন হিসেবে যদি কেউ ‘এপ্রিল ফুল’ উদযাপন করে তবে তা হবে সর্বকালের সেরা নিষ্ঠুর সংস্কৃতি।
ইসলামের আলোকে ‘এপ্রিল ফুল’ সংস্কৃতি উদযাপনে তিনটি বড় অপরাধ তথা কবিরা গোনাহ সংঘটিত হয়। যে গোনাহগুলো এপ্রিল ফুল উদযাপনের মূল উপকরণ।
মিথ্যা বলা
‘এপ্রিল ফুল’ উদযাপনের বড় উপাদান হলো মিথ্যা কথা বলা। মিথ্যা ছাড়া কোনোভাবেই এপ্রিল ফুল উদযাপন সম্ভব নয়। এ মিথ্যা হলো সব পাপের জননী। মিথ্যা শুধু ইসলামেই ঘৃণিত অপরাধ নয় বরং দুনিয়ার সব ধর্ম এবং সব সভ্যতায় এটি ঘৃণিত এবং জঘন্য অপরাধ।
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম মিথ্যা সম্পর্কে হাদিসে পাকে ঘোষণা করেন-
‘তোমরা মিথ্যা থেকে বেঁচে থাকবে। কারণ এ মিথ্যা মানুষকে জাহান্নামের দিকে নিয়ে যায়।’ (বুখারি)
অন্য হাদিসে এসেছে-
'যখন কোনো ব্যক্তি বার বার মিথ্যা কথা বলতে থাকে, একটা পর্যায়ে আল্লাহর কাছে সে ব্যক্তির নাম মিথ্যাবাদী হিসেবে লিপিবদ্ধ হয়ে যায়।’
অন্য হাদিসে প্রিয় নবী বলেন-
‘এ মিথ্যায় লিপ্ত হওয়ার কারণে একটা সময় মানুষের কথা, কাজই নয় বরং তার অন্তরে মিথ্যার ফাউন্ডেশন তৈরি হয়। মিথ্যা ছাড়া কোনো কিছুই সে কল্পনা করতে পারে না। এমনটি সে ব্যক্তির অন্তরে একটি সুঁইয়ের জায়গা পরিমাণ ভালো কাজও প্রবেশ করতে পারে না।’
সুতরাং মিথ্যা ছাড়া যে অনুষ্ঠান (এপ্রিল ফুল) উদযাপন করা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। একজন সচেতন মুমিন মুসলমান কীভাবে এপ্রিল ফুল উদযাপনে বার বার বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে মিথ্যা বলতে পারে, যা মুমিন মুসলমানের কাছে কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না।
ধোঁকা দেয়া বা প্রতারণা করা
এপ্রিল ফুল পালনে একজন অন্যজনের সঙ্গে মিথ্যার সঙ্গে সঙ্গে ধোঁকা বা প্রতারণামূলক কাজ করতে হয়, যা ইসলামে চরমভাবে ঘৃণিত ও দোষনীয় কাজ। হাদিসে পাকে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-
‘যে ব্যক্তি কারো সঙ্গে প্রতরণা করল সে আমার উম্মত হতে পারে না।’ (মুসলিম)
আবার এপ্রিল ফুল পালনে যে ব্যক্তির সঙ্গে মানুষ প্রতারণা করে বা ধোঁকা দেয়, হতে পারে সে এ আচরণে আনন্দ না পেয়ে কষ্টও পেতে পারে। যদি এ প্রতারণা অন্যের কষ্টের কারণ হয়ে তবে তা আরেকটি অন্যায় বা অপরাধ হয়ে গেলো।
ইসলাম বিদ্বেষীদের অনুকরণ
বিজাতীয় কালচার বা সংস্কৃতি অনুসরণ ও অনুকরণ ইসলামে মারাত্মক অপরাধ। তা যদি হয় এপ্রিল ফুলের মতো মিথ্যা, ধোঁকা বা প্রতারণার মাধ্যমে উদযাপন করা আনন্দ-উৎসব তবে তা পালন করা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।
সুতরাং মুমিন মুসলমানের জন্য বিজাতীয় অন্যায় ও গোনাহের সংস্কৃতি ‘এপ্রিল ফুল’ প্রত্যাখ্যান করা, এপ্রিল ফুল থেকে নিজেদের বিরত রাখা এবং এপ্রিল ফুলকে না বলা ঈমানের একান্ত দাবি।
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে বিজাতীয় ঘৃণ্য মিথ্যা ও ধোঁকার সংস্কৃতি এপ্রিল ফুল থেকে বিরত থাকার তাওফিক দান করুন। আমিন।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop