ksrm

বাংলার সময়ব্রহ্মপুত্রের ভাঙন ঝুঁকিতে ৩৫ হাজার গ্রামবাসী

শওকত আলী সৈকত

fb tw
somoy
ব্রহ্মপুত্র নদের তীরবর্তী নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের পাঁচটি গ্রাম ভাঙনের ঝুঁকিতে পড়েছে। যার কারণে আতংকে জীবন যাপন করছেন প্রায় ৩৫ হাজার গ্রামবাসী।   
বিআইডব্লিউটিএ’র ড্রেজার দিয়ে নদী খনন কাজের কারণে এই ভাঙনের সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। তবে ভাঙনরোধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষসহ স্থানীয় সংসদ সদস্য।
শম্ভুপুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মনির হোসেন তোতা সময় নিউজকে জানান, গত ৩১ মার্চ নারায়ণগঞ্জ বিআইডব্লিউটিএ’র একটি ড্রেজার মেঘনা-ধলেশ্বরী ও ব্রহ্মপুত্র নদের মোহনায় অবস্থান করে ব্রহ্মপুত্র নদের খনন কাজ শুরু করে। নদীটির প্রশস্ত কম হওয়ায় এই খনন কাজের কারণে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। নদীর তীরবর্তী শম্ভুপুরা ইউনিয়নের প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকায় ভাঙন শুরু হয়। এই ইউনিয়নের পাঁচটি গ্রাম শম্ভুপুরা, বানিয়াচং, দড়িগাঁও, গোবিন্দপুর এবং ফরদি এই ভাঙনের কবলে পড়ে।  
তিনি জানান, এরই মধ্যে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে একটি মসজিদের সীমানা প্রাচীর, কয়েকটি মুরগির খামার, ইরি ধানের সেচ প্রকল্প, দুইটি রাইস মিলের চাতাল ও তিনটি বিদ্যুতের খুঁটিসহ ১০ থেকে ১৫টি বসতঘর। পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপে খনন কাজ সাময়িকভাবে বন্ধ করা হলেও এখনো ঝুঁকির মুখে রয়েছে চারটি মসজিদ, ছয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ১০ থেকে ১২টি পশুর খামার ও রাইস মিলসহ পাঁচ শতাধিক বসতবাড়ি।  
গ্রামবাসী জানান, পূর্বপুরুষদের রেখে যাওয়া এই ভিটামাটি তাদের একমাত্র ঠিকানা। এই ভিটা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেলে তাদের আর যাওয়ার কোনো জায়গা থাকবে না, পরিবার নিয়ে খোলা আকাশের নীচে বসবাস করতে হবে। এই নদী ভাঙনরোধে তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
 
শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুর রউফ সময় নিউজকে বলেন, ড্রেজারের খনন কাজের কারণে গ্রামগুলোতে ভাঙন শুরু হলে আমি নিজে এসে বিষয়টি দেখেছি। এরপর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে আমাদের সংসদ সদস্যকে বিষয়টি জানিয়েছি। তিনি এসে পুরো অবস্থা দেখেছেন এবং আমাদের সাথে কথা বলেছেন। দ্রুত এর সমাধান করবেন বলে তিনি আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন। আমরা সমাধানের অপেক্ষায় আছি। আশা করি এ সমস্যা তিনি সমাধান করবেন।  
তবে বিষয়টি আমলে নিয়ে সতর্কতা অবলম্বনের কথা উল্লেখ করে ভাঙনরোধের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি আলোচনায় আনা হবে বলে জানান বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দরের যুগ্ম-পরিচালক মো. গুলজার আলী। সময় নিউজকে তিনি বলেন, গ্রামগুলো ভাঙনের খবর পাওয়ার সাথে সাথে ড্রেজারের খনন কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক ও সংসদ সদস্যের কাছে বিষয়টি আমি উপস্থাপন করব। উনারা যা সিদ্ধান্ত দেবেন, সে অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। 
এ ব্যাপারে স্থানীয় সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা সময় নিউজকে জানান, লাঙ্গলবন্দের স্নান উৎসবকে কেন্দ্র করে ব্রহ্মপুত্র নদ খননের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে বড় ধরনের একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। ব্রহ্মপুত্র নদের প্রায় সাতটি পয়েন্টে ড্রেজারের মাধ্যমে পুরো নদ খনন করে সচল করা হবে। এরই অংশ হিসেবে এই খনন কাজ চলছে। তবে গ্রামবাসী যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে ব্যবস্থা করা হবে। 
তিনি বলেন, আমি ভাঙন এলাকাগুলো ঘুরে দেখেছি। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার্থে আমাদের নদীও রক্ষা করতে হবে। আর গ্রামগুলোকেও বাঁচাতে হবে। কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হোক আমরা চাই না। 
খনন কাজের মাধ্যমে নদী রক্ষা করার পাশাপাশি গ্রামগুলো রক্ষার ব্যাপারে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে কথা বলে দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দিয়ে খোকা জানান, নদীর তীরবর্তী এলাকাগুলো বাঁধ নির্মাণ করে গ্রামবাসীর চলাচলের জন্য মনোরম পরিবেশে রাস্তা নির্মাণের পরিকল্পনাও রয়েছে সরকারের।  
 
এদিকে নদী ভাঙনরোধ সহ গ্রামগুলো রক্ষার দাবিতে বৃহস্পতিবার (১২ এপ্রিল) দুপুরে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে মানবন্ধনসহ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন পাঁচ শতাধিক নারী-পুরুষ ও শিক্ষার্থীরা।   
পরে শম্ভুপুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে সবাই জড়ো হয়ে বিক্ষোভ মিছিল বের করে কয়েকটি গ্রাম পরিদর্শন করেন। ব্রহ্মপুত্র নদের এই ভাঙন রোধ করা না হলে শম্ভুপুরা ইউনিয়নের পাঁচটি গ্রামের প্রায় ৩৫ হাজার মানুষের ভয়াবহ ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop