রসুই ঘরইফতারের এই রেসিপিতে হোক প্রথম রমজান

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
একদিন পরেই পবিত্র মাহে রমজান। আর পবিত্র রমজানুল মোবারকের অন্যতম দান হলো ইফতার। রসূল সা. বলেন: কেউ যদি রমজান মাসে কোনো রোজাদারকে ইফতার করায় তাহলে ওই ইফতার করানোটা তার গুনাহ মাফের ও জাহান্নাম থেকে মুক্তির কারণ হবে এবং সে একটি রোজার সওয়াব পাবে অথচ রোজা পালনকারীর নেকী মোটেই কমানো হবে না।
আজ দেয়া হলো ইফতারের কিছু রেসিপিঃ-

মজাদার ঝটপট ইফতার রেসিপি
চিড়ার চপঃ
উপকরণ :
    চিড়া – ১কাপ
    পিয়াজ কুচি – ১/২ কাপ
    কাচা মরিচ কুচি – পছন্দ মতন
    গোল মরিচ গুড়া – পছন্দ মতন
    লবণ – স্বাদ মতন
    চালের গুড়া – ১ টেবিল চামচ (মচমচে করার জন্য, যদি আপনি চান)
    ডিম – ১ টা
    ধনে পাতা কুচি – প্রয়োজনমত
    তেল – চপ ভাজার জন্য পরিমাণমত
প্রস্তত প্রণালী :
চিড়া ভাল করে ধুয়ে, পানিতে ৫ মিনিটের মতন ভিজিয়ে রাখতে হবে। ৫ মিনিট পর ভাল করে পানি ঝরিয়ে চিড়াগুলিকে একটি বাটিতে নিতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে চিড়াতে যেন পানি না থাকে। এরপর এক এক করে সব উপকরণ মিশাতে হবে। এইবার এই মিশ্রণ দিয়ে ছোট ছোট বল বানিয়ে, চপ এর মতন সাইজ করে একটা প্লেটে রাখতে হবে। এখন ফ্রাই প্যানে অল্প তেল দিয়ে চপগুলি ভাজতে হবে। যখন চপ গুলি বাদামি রঙ হবে তখন প্লেটে তুলে রাখুন। তৈরি হয়ে গেল মজাদার চিড়ার চপ!
স্পেশাল আলুর চপ
উপকরণ :
    আলু ৫০০ গ্রাম,
    ডিম ১টি সিদ্ধ করে ভর্তা করতে হবে,
    কাঁচামরিচ কুচি ১ চা চামচ,
    ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ,
    পেয়াজ বেরেস্তা করা ২ টেবিল চামচ,
    গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ,
    ডিম ১টি ফেটানো,
    বিস্কুটের গুঁড়ো পরিমাণমতো,
    তেল ভাজার জন্য পরিমাণমতো,
    লবণ স্বাদ অনুযায়ী।
প্রস্তুত প্রণালীঃ
প্রথমে আলু সিদ্ধ করে লবণ দিয়ে কিছুক্ষণ মেখে রাখতে হবে। একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে একে একে তাতে আলু ভর্তা, ডিমের ভর্তা, কাঁচামরিচ কুচি, ধনেপাতা কুচি, গরম মশলা গুড়ো, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং পেয়াজ বেরেস্তা দিয়ে ভালোভাবে ভাজা ভাজা করে আবার মেখে নিতে হবে। হাল্কা হাতে চ্যাপটা আকারের চপগুলো প্রায় ১০-১২টি করে ফ্রিজে প্রায় ৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। এরপর ডিমের গোলায় ডুবিয়ে বিস্কুটের গুঁড়ো মিশিয়ে গরম ডুবন্ত তেলে ভেজে টিস্যু পেপারে তুলে রাখতে হবে। ব্যাস তৈরি হয়ে গেলো মজাদার আলুর চপ। ব্যাস! আমরা শিখে ফেললাম সুন্দর একটি ঝটপট ইফতার রেসিপি ।
মচমচে পিঁয়াজু
উপকরণ :
    মসুর ডাল – ১ কাপ
    পেঁয়াজ কুচি- ২ টা মাঝারি আকারের
    কাঁচামরিচ কুচি – ৬-৭ টা বা স্বাদমত
    চালের গুঁড়া – ১ ও ১/২ টেবিল চামচ
    জিরা গুঁড়া – ১/২ চা চামচ
    হলুদ গুঁড়া – ১/২ চা চামচ
    আদা বাটা – ১/২ চা চামচ
    রসুন বাটা – ১/২ চা চামচ
    ধনিয়া পাতা কুচি – ২ টেবিল চামচ
    লবণ – ৩/৪ চা চামচ বা স্বাদমত
    তেল – ডুবো তেলে ভাজার জন্য যতটুকু লাগে
প্রস্তত প্রণালী :
প্রথমে মসুর ডাল ভাল করে ধুয়ে ২-৩ ঘণ্টা কুসুম গরম পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সবচেয়ে ভালো হয় যদি আগের রাতে ভিজিয়ে রাখেন, পুরো রাত্রি ভিজিয়ে রাখেন। তারপর পানি ফেলে দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। খুব মিহি করে ব্লেন্ড করার দরকার নেই। একটু দানাদার থাকতে নিয়ে নিন। আর পারলে ব্লেন্ডারের জায়গায় শিল-পাটা দিয়েও ডাল বাটতে পারেন। ব্লেন্ড করা বা বাটা ডাল একটি বাটিতে নিয়ে তেল ছাড়া সব উপকরণ দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার প্যানে তেল গরম করে ১ টেবিল চামচ মত ডালের মিশ্রণ নিয়ে গোল করে তেলে ছাড়ুন। প্যানে জায়গা অনুযায়ী আরও পিঁয়াজু তেলে দিন এবং মাঝারি আঁচে উভয় পাশ হাল্কা বাদামী করে ভেজে নিন।
ভাজা হয়ে গেলে কিচেন টিস্যুতে তুলে নিন। এভাবে সব পিঁয়াজু ভেজে গরম গরম পরিবেশন করুন আপনার ইফতারির টেবিলে।
বেগুনিঃ
উপকরণঃ
    ছোলার ডালের বেসন দেড় কাপ
    চালের গুঁড়া আধা কাপ
    লম্বা বেগুন ১-২টি
    মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ
    হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ
    বেকিং পাউডার এক চা-চামচ
    পেঁয়াজ বাটা এক চা-চামচ
    রসুন বাটা এক চা-চামচ
    আদা বাটা এক চা-চামচ
    লবণ পরিমাণমত
    তেল (ভাজার জন্য) পরিমাণমত
প্রস্তত প্রণালী :
বেগুন ও তেল বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে পানি দিয়ে মিশিয়ে থকথকে গোলার মত করে ফেলুন। এরপর কিছু সময় ঢেকে রাখুন। বেগুন পাতলা টুকরা করে কেটে সামান্য লবণ ও হলুদ মাখিয়ে রাখুন। এরপর কড়াইয়ে তেল গরম করে বেগুন বেসনের গোলায় ডুবিয়ে ডুবো তেলে ভাজতে শুরু করুন আস্তে আস্তে। খেয়াল রাখবেন যেন মচমচে বাদামি রঙ করে ভাজা হয়। এরপর তেল থেকে উঠিয়ে কিচেন টাওয়েল অথবা কাগজের ওপর রাখতে হবে যাতে অতিরিক্ত তেল শুষে নেয়। তৈরি হয়ে গেল গরমাগরম মজাদার বেগুনি!
ছোলা বুটঃ
উপকরণ:
    ১ কাপ ছোলা
    ১/৪ কাপ পেঁয়াজ কুচি
    ২ টি টমেটো কিউব করে কাটা
    ২ টি কাঁচামরিচ কুচি
    ৩ টেবিল চামচ তেল
    ২ চা চামচ ধনে গুঁড়ো
    ১ চা চামচ জিরা গুঁড়ো
    আধা চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
    আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
    দেড় চা চামচ লেবুর রস
    ১ চা চামচ আদা-রসুন বাটা
    আধা চা চামচ গরম মসলা গুঁড়ো
    লবণ স্বাদমতো
    ১ চিমটি বিট লবণ
    ধনে পাতা কুচি ইচ্ছে
পদ্ধতি:
প্রথমে ছোলা বুট পানিতে ভিজিয়ে রাখুন সারারাত। এরপর সামান্য লবণ ও হলুদ গুঁড়ো দিয়ে ছোলা বুট সেদ্ধ করে নিন । চুলায় প্যানে তেল দিয়ে গরম করে আদা-রসুন বাটা দিন । একটু লালচে হয়ে এলে এতে পেঁয়াজ কুচি দিন। পেঁয়াজ কুচি নরম হয়ে এলে বাকি সকল মসলা একের পর একে প্যানে দিয়ে সামান্য পানি দিয়ে মসলা কষাতে থাকুন। মসলা কষে আসার পর টমেটো কুচি দিয়ে ভালো করে নেড়ে ছোলা বুট ঢেলে দিন। ভালোমতো নাড়াতে থাকুন মসলা মাখা মাখা হয়ে যাওয়া পর্যন্ত। এরপর লেবুর রস দিয়ে ভালো করে নেড়ে উপরে ধনে পাতা কুচি ছিটিয়ে নামিয়ে নিন। ব্যাস, তৈরি মজাদার ছোলা বুট।
সূত্র:- খাস ফুড

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop