প্রবাসে সময়নিউইয়র্কে ‘মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১’ বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠান

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
নিউইয়র্কে লেখক ও সাংবাদিক শামীম আল আমিনের ‘মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১’ বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠান হয়েছে। জ্যাকসন হাইটসের বাংলাদেশ প্লাজা মিলনায়তনে বইয়ের পাঠোন্মোচন করেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের উপ স্থায়ী প্রতিনিধি তারেক মো: আরিফ হোসেন, নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, প্রবীণ সাংবাদিক সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ ও পিপল এন টেকের প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপ।
সাংবাদিক হাসানুজ্জামান সাকীর সঞ্চালনায় কামরুজ্জামান বকুলের কণ্ঠে ‘যে মাটির বুকে ঘুমিয়ে আছে, লক্ষ মুক্তি সেনা’ গানটি দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে সাউথ এশিয়ান এন্টারটেইনমেন্ট।  
২০১৮ সালের ১১ মে ফ্লোরিডার সময় অনুযায়ী, বিকাল ৪টা ১৪ মিনিটে মহাকাশে উড়ে যায় ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১’। বাংলাদেশে তখন শুক্রবার শেষ হয়ে শনিবার পড়েছে। ক্ষণ রাত ২টা ১৪ মিনিট। ঐতিহাসিক সেই ঘটনার এক বছর পূর্তি হতে চলেছে। সেই উপলক্ষকে সামনে রেখে নিউইয়র্কে এমন আয়োজন।  
চলতি বছর অমর একুশে বইমেলায় আদিত্য প্রকাশ এনেছিল ‘মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১’। তখন বইটি নিয়ে ঢাকায় উৎসব হয়েছিল। এবার নিউইয়র্কে হয়ে গেল প্রকাশনা অনুষ্ঠান।
অনুষ্ঠানে জাতিসংঘে বাংলাদেশের উপ স্থায়ী প্রতিনিধি তারেক মো: আরিফ হোসেন বলেন, একজন সাংবাদিক হিসেবে শামীম আল আমিন একটি ঐতিহাসিক ঘটনাপ্রবাহের সংবাদ সংগ্রহের কাজ করেই কেবল থেমে থাকেননি, তা নিয়ে বই লিখে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।
নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুন্নেসা বইটিকে একটি ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে তুলে ধরে বলেন, ভবিষ্যতে ইংরেজিসহ বিভিন্ন ভাষায় এই বইটি প্রকাশের উদ্যোগ নেয়া দরকার। এতে করে বিশ্ববাসী বাংলাদেশের গৌরব সম্পর্কে জানতে পারবে।
যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বইটির জন্য লেখককে ধন্যবাদ জানান। তিনি অভিযোগ করে বলেন, জাতির জনকের নামাঙ্কিত স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণের সময়ও নানান অপপ্রচার চালানো হয়েছিল। কিন্তু সফল উৎক্ষেপণের মাধ্যমে সবাই জবাব পেয়েছে। এখনও স্যাটেলাইটের কার্যকারিতা নিয়ে কোন কোন মহল ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা তথ্য প্রচারের চেষ্টা চালাচ্ছে।
ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপ বলেন, শুধু কথায় নয়, দেশ যে সত্যিকার অর্থেই ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত হয়েছে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের মতো ঘটনা তারই প্রমাণ। সরকার তথ্য-প্রযুক্তি খাতকে আরও অনেকদূর নিয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ, হাসান ফেরদৌস, জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি (প্রেস) নূর এলাহী মিনা প্রমুখ।
লেখক শামীম আল আমিন তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ইতিহাস গড়া সেই দিনে কেনেডি স্পেস সেন্টারে উপস্থিত থাকতে পারাটা ছিল ভীষণ সৌভাগ্যের। আর সেই ঘটনাপ্রবাহ লিখে রাখা একান্ত প্রয়োজন বলে মনে হওয়ায় বইটি লেখা। বিশেষ করে তরুণদের মধ্যে এক ধরনের জাগরণ তৈরি করাই বইটি লেখার উদ্দেশ্য।
প্রকাশনা অনুষ্ঠান উপলক্ষে নাইজেরিয়া থেকে লিখিত বার্তা পাঠিয়েছেন সেখানে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো: শামীম আহসান। স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের সময় তিনি নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেলের দায়িত্বে ছিলেন।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop