ksrm

পশ্চিমবঙ্গবুথফেরত সমীক্ষাকে ‘গসিপ’ বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা অফিস

fb tw
somoy
রোববার (১৯ মে) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ছয়টায় শেষ হয়েছে ভারতের ১৭তম জাতীয় লোকসভা নির্বাচনের সপ্তম ও শেষ দফার ভোট গ্রহণ। আর এর সঙ্গে সঙ্গে দেশজুড়ে পরিচালিত বুথফেরত সমীক্ষার ফল প্রকাশ হচ্ছে। 
এখনও পর্যন্ত দেশটির শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যম এবং সমীক্ষক সংস্থার পরিচালিত সমীক্ষায় যা আভাস তাতে যেমন ভারতের আবারও ক্ষমতায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আবার পশ্চিমবঙ্গেও তাদের প্রভাব বাড়তে চলেছে। তৃণমূল কংগ্রেসের পূর্ব ঘোষিত ৪২ আসনতো তারা পাচ্ছেই না বরং তাদের আসন কমছে গতবারের পাওয়া সংখ্যা থেকেও। 
আর তাতেই বেজায় ক্ষুব্ধ হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্থানীয় সময় সাড়ে ছয়টা সমীক্ষার ফল প্রকাশের শুরু থেকেই যখন আভাস মিলতে শুরু করে ঠিক তখনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে তার প্রতিক্রিয়া জানান এবং সেখানে তিনি এই সমীক্ষাকে ‘গসিপ’ বলে উল্লেখ করেছেন। 
মমতা বলেছেন, ‘আমি এক্সিট পোলের রটনায় বিশ্বাস করি না। এটা একটা গেম প্ল্যান, যাতে এই রটনার মাধ্যমে হাজার হাজার ইভিএম বদলে দেওয়া যায় ৷’ এর পাশাপাশি বিরোধী দলগুলির উদ্দেশে তিনি লেখেন,‘আমি সমস্ত বিরোধী দলগুলিকে সংঘবদ্ধ থাকার আবেদন জানাচ্ছি। শক্তিশালী থাকুন। আমরা সবাই একসঙ্গে লড়ব ৷’
শুধু তাই নয়, কলকাতার একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে টেলিফোনে জানান, নরেন্দ্র মোদীর এটা কৌশল। এই রকম সমীক্ষা করে বিভ্রান্ত করে ইভিএম মেশিন পাল্টানোর ছক করেছেন মোদী। তিনি তার দলের সবাইকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, সবাইকে পাহারা দিতে হবে। কেউ যাতে কোনো ইভিএম পাল্টাতে না পারেন। 
মমতা আরো বলেন, এই সমীক্ষা করে শেয়ার বাজার চড়িয়ে সেখান থেকেও টাকা তোলার পরিকল্পনা আছে বিজেপির।
প্রসঙ্গত, পশ্চিমবঙ্গের ৪২ আসনের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের যে ৪২ টি আসনের জয় পাওয়ার ডাক দিয়েছিলেন সেই সম্ভাবনা নেই। টাইমস নাউ-ভিএমআরের সমীক্ষা অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গের মোট ৪২ আসনের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস পেতে পারে ২৮ আসন। ১১ আসন পেতে পারে বিজেপি। কংগ্রেসের ঝুলিতে যতে পারে ২ আস। মাত্র আসন পেতে পারে বামফ্রন্ট।
অন্যদিকে নিয়েলসনের সমীক্ষা বলছে, ২৪টি আসন পেতে পারে তৃণমূল।  বিজেপি পেতে পারে ১৬টি আসন। কংগ্রেস ২ আসন পেতে পারে। বামফ্রন্টকে তারা এই রাজ্য থেকে কোনো আসন পাওয়ার সম্ভাবনা দিতে পারেনি।
সি ভোটারের সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ২৯ আসন পেতে পারে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেস। মোদীর বিজেপির ঝুলিতে যেতে পারে ১১ আসন। কংগ্রেস পেতে ২ আসন।
রাজ্যের প্রেক্ষাপটে এসব সমীক্ষাতে কংগ্রেস আর বামফ্রন্টের খুবই নাজুক পরিস্থিতি স্পষ্ট আভাস দিচ্ছে। আর একই সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে ৪২ আসনের সব গুলোতেই তারা দখল নেবে বলে দাবি করা হলেও সমীক্ষার আভাস তাদের কিন্তু আসন সংখ্যা বাড়ছে না এবার বরং কমছে।
অন্যদিকে বিজেপির আসন বাড়ছে মমতার মাটিতে। সবশেষ ২টি আসন পেয়েছিল ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে। এবার অবশ্য তাদের ভাগ্যে আরো বেশি আসনের আভাস দিচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সমীক্ষক প্রতিষ্ঠানের করা সমীক্ষার এই ফলাফল।
 
 
 
 
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop