ধর্মবয়সের কারণে কি রোজা মাফ হয়?

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
বয়স বেশি রোজা হলে রোজা রাখার প্রয়োজন হয় না বলে অনেকে মন্তব্য করে থাকেন। কিছু বইয়েও এমন মন্তব্য পাওয়া যায়। তবে এই মন্তব্য সঠিক নয়।
নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক বিষয়ে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান এ প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ।
রমজানের বিশেষ ওই অনুষ্ঠানে এক দর্শক টেলিফোনে প্রশ্নে করেছিলেন, বয়স বেশি হলে রোজা আল্লাহ মাফ করে দেন কি না।
দর্শকের প্রশ্নটি ছিল, অনেক বইয়ে লেখে, ৬০ বছরের পরে রোজা আল্লাহ মাফ করে দেন। এ ব্যাপারে একটু জানতে চাই।
উত্তরে ড. মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ বলেন, ৬০ বছর পর রোজা মাফ হয়ে যায়, এ ধরনের বক্তব্য কোরআন ও হাদিস দ্বারা সাব্যস্ত হয়নি। যতক্ষণ পর্যন্ত শারীরিক সক্ষমতা থাকবে, সিয়াম পালন করে যেতে হবে। বয়স ১২০ বা যত বছরই হোক না কেন। 
তিনি বলেন, আবার ২৫ বছর বা ৩০ বছর কারো বয়স, কিন্তু সে শারীরিকভাবে অক্ষম, তাহলে তার পক্ষ থেকে ইসলাম সিয়াম উঠিয়ে নিয়েছে এবং সে ফিদিয়া দেবে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop