তথ্য প্রযুক্তির সময়‘স্ক্র্যাচ’ প্রতিযোগিতা সোমবার, অংশ নিচ্ছে ১০ হাজারের বেশি খুদে শিক্ষার্থী

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার প্রাথমিক পর্যায়ের খুদে প্রোগ্রামারদের প্রশিক্ষণ শেষে স্ক্র্যাচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে সোমবার (১৭ জুন)। সকাল ৯ টায় শুরু হয়ে পরীক্ষা চলবে বিকেলে ৫টা পর্যন্ত। স্ক্যাচ প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে প্রাথমিকের প্রায় সাড়ে ১১ হাজার খুদে শিক্ষার্থী।
প্রাথমিকের তথা শিশু পর্যায়ের কোনো প্রতিযোগিতায় এতো অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা একটি মাইলফলক হিসেবে মনে করছেন আয়োজকরা। ‘অবাক হচ্ছে বিশ্ব এবার, বাংলার শিশুরা প্রোগ্রামার’ স্লোগান নিয়ে প্রতিযোগিতার আয়োজক সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং তারুণ্যের প্লাটফর্ম ‘ইয়াং বাংলা’।
দেশের ৬৪ জেলায় নির্ধারিত ২শ’ বেশি পরীক্ষা কেন্দ্রের পাশাপাশি নিজ নিজ স্কুলেও অনলাইনে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা। অংশগ্রহণের জন্য পরীক্ষার পোর্টালে (http://nctpc.srdlict.com/e) ফোন নাম্বার (যে নম্বর দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করা) এবং পাসওয়ার্ড(মেসেজে প্রদত্ত) দিয়ে লগইন করতে হবে।
এরপর ফাইল আপলোড এবং দলের সদস্যদের বিস্তারিত প্রদান করার জন্য অপশন পাওয়া যাবে। যথাযথভাবে পূরণ করে সাবমিট করতে হবে।সঠিকভাবে সাবমিট করতে পারলে সফল হয়েছে বলে জানানো হবে। এক্ষেত্রে এখনো কেউ পাসওয়ার্ড না পেয়ে থাকলে, দ্রুত জেলা সমন্বয়কের সঙ্গে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্টসূত্রে, যেকোন বিদ্যালয়ের শিশু থেকে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা স্ক্র্যাচ প্রতিযোগিতা অংশ নিচ্ছে। এ প্রতিযোগিতা থেকে বাছাই করা হবে জেলাভিত্তিক একটি দল। যারা পরবর্তীতে দেশসেরা হওয়ার লড়াইয়ে অংশ নেবে জাতীয় ক্যাম্প ও প্রতিযোগিতায়।
এরআগে, ১৫ জুন সকালে ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, রংপুর, রাজশাহী, সিলেট, ময়মনসিংহসহ ৬৪ জেলার ২শ’র বেশি শেখ রাসেলে ডিজিটাল ল্যাবে শুরু হয় জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার ৫ দিনের এ আয়োজন। প্রথম ও দ্বিতীয় দিন (১৬ জুন) খুদে প্রোগ্রামারদের দেয়া হয় স্ক্র্যাচ প্রশিক্ষণ।
সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) অ্যাসোসিয়েট কো-অর্ডিনেটর তন্ময় আহমেদ জানান, আগামী ১৮ ও ১৯ জুন দেয়া হবে পাইথন প্রোগ্রামারদের জন্য প্রশিক্ষণ। তাদের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে ২০ জুন। ৬ষ্ঠ-৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা পাইথন জুনিয়র এবং ৯ম-১০ম শ্রেণি ও সদ্য পাসকরা এসএসসি পরীক্ষার্থীরা পাইথন সিনিয়র ক্যাটাগরিতে প্রশিক্ষণ গ্রহণ ও প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ নিচ্ছেন। এবারই প্রথম পাইথনে অংশ নেয়ার সুযোগ দেয়া হয়েছে সদ্য এসএসসি পাসকৃতদের।
স্ক্র্যাচ ও পাইথনে জেলা পর্যায়ে  বিজয়ীদের নিয়ে জাতীয় ক্যাম্প ও প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে সাভার শেখ হাসিনা যুব উন্নয়ন কেন্দ্রে। প্রতি জেলা থেকে বিজয়ী স্ক্র্যাচ টিম এবং বিজয়ী পাইথন প্রতিযোগীরা জাতীয় ক্যাম্পে যোগ দিয়ে ফাইনাল প্রতিযোগিতায় অংশ নিবে। সেখান থেকে বাছাই করা হবে সেরা টিম। সমাপণী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন বলে আশা করছেন আয়োজকরা।

আরও পড়ুন

সারাদেশে শুরু হলো জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop