ksrm

ভোটের হাওয়াসুন্দরগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর জয়

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. আশরাফুল আলম সরকার লেবু বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতিকে তিনি পেয়েছেন ২৭ হাজার ৪৪৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী খয়বর হোসেন সরকার মওলা ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ১৯ হাজার ৩৬৩ ভোট। পেশায় ব্যবসায়ী আশরাফুল আলম সরকার লেবু সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক।
মঙ্গলবার (১৮ জুন) রাত সোয়া ১১টার দিকে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ছোলেমান আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আলমগীর কবীর ১১১টি ভোট কেন্দ্রের প্রাপ্ত ভোটে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।
এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ পদে নির্বাচিত হয়েছেন সফিউল ইসলাম। চশমা প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ২৯ হাজার ৯০৫ ভোট। সফিউল ইসলাম কঞ্চিবাড়ী ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মোছা. উম্মে ছালমা। হাঁস প্রতিকে তিনি পেয়েছেন ২৮ হাজার ৪৮০ ভোট।
নির্বাচনে তিনটি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ১৪ প্রার্থী। এরমধ্যে চেয়ারম্যান পদে চারজন, ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ পদে ছয়জন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টি প্রার্থী লাঙ্গল প্রতীকের আহসান হাবীব খোকন পেয়েছেন ১৪ হাজার ৯৪২ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম আহসান হাবীব মাসুদ মোটরসাইকেল প্রতিকে পেয়েছেন ২ হাজার ১৮৬ ভোট।
এর আগে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত উপজেলার ১১১টি ভোট কেন্দ্রে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। প্রতিটি কেন্দ্রসহ পুরো উপজেলাজুড়েই কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার ছিল। প্রায় সাড়ে সাত শতাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মাঠে দায়িত্ব পালন করেন। এ কারণে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে চন্ডিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে তিনজনকে আটক করে পুলিশ। এছাড়া সোনারায় বাজার এলাকায় অনুমোদনহীন দুটি মোটরসাইকেল ও শ্যালোইঞ্জিন চালিত একটি ভটভটির মালিকের নিকট জরিমানা আদায় করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
সুন্দরগঞ্জ উপজেলার মোট ভোটার ৩ লাখ ৩৯ হাজার ২১৮ জন। এরমধ্যে ১১১টি ভোট কেন্দ্রে প্রাপ্ত কাস্টিং ভোট পড়েছে ১৯ দশমিক ৪৫ শতাংশ। ভোটগ্রহণ শুরু থেকেই অধিকাংশ ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারের উপস্থিতি ছিল খুবই কম। বেশিরভাগ কেন্দ্রেই ভোটারদের লাইন দেখা যায়নি। প্রাপ্ত ভোটের মধ্যে নারী ভোটারের উপস্থিতি বেশি ছিল।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop