বিনোদনের সময়আমার নাম বলানোর জন্য কিমকে অত্যাচার করা হচ্ছে: মিলা

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির ওপর এসিড নিক্ষেপের ঘটনায় সংগীত শিল্পী মিলার সংশ্লিষ্টতা আছে, এই কথা বলানোর জন্য তার সহকারী জন পিটার হাওলাদার কিমের ওপর চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন মিলা। বৃহস্পতিবার নিজের আইনজীবীর বরাতে মিলা এ দাবি করেন।
মুঠোফোনে মিলা জানান, কিমের মুখ দিয়ে তার নাম বের করার জন্য উদ্দেশ্যমূলকভাবে তাকে শারীরিক এবং মানসিকভাবে ব্যাপক নির্যাতন করা হচ্ছে।
মিলার আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাপস চন্দ্র দাস জানিয়েছেন, কিমকে আটক করার পর বৃহস্পতিবার (০৪ জুলাই) তাকে আদালতে হাজির করে ডিবি পুলিশ। পুলিশ ব্যাপক মারধর করেছে এবং তার শরীরে আঘাতের চিহ্নও দেখা গেছে। সে বলেছে, তাকে সারা রাত মারধর করা হয়েছে।
এ আইনজীবী বলেন, কিম তাকে জানিয়েছেন, এসিড নিক্ষেপের ঘটনার সঙ্গে মিলা জড়িত, সে কথা তাকে জোরপূর্বক বলানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তাকে ব্যাপক শারীরিক এবং মানসিক চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, আদালতেও সে বলেছে, এই ঘটনার সঙ্গে মিলা আপা জড়িত নন।
পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে একটা প্রভাব বিস্তার করে এই রকম একটা মামলায় কিমের তিন দিনের রিমান্ড নেয়া হয়েছে বলেও দাবি করেন অ্যাডভোকেট তাপস চন্দ্র দাস।
তিনি জানান, আদালতে দাঁড়িয়ে আসামি বার বার বলছিলেন, এই ঘটনা কে ঘটিয়ে তা আমি জানি না। মিলা আপাও এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন।
তবে কিছুদিন আগে এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছিলেন কিম। এ বিষয়ে জানতে চাইলে আইনজীবী তাপস চন্দ্র জানান, ওই সময় পুলিশের কাছে তিনি এটা বলেছিলেন। তবে ওই হামলা তিনি নিজে করেছে সেটা এখন আদালতের কাছে বলতে চাচ্ছেন না। এটা তো সাক্ষ্য প্রমাণের ব্যাপার।
এ আইনজীবী জানান, মামলা এখনো তদন্তাধীন। মিলা এরইমধ্যে উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিন নিয়েছেন। আর ওই আসামিকে (কিম) গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার (০৪ জুলাই) আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হয়। আদালত তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।
এদিকে মিলা বলেন, ওই ঘটনার (সানজারির ওপর হামলা) পর কিমকে আমি ফোন করেছিলাম। সেই ফোনের রেকর্ডিং আমি সংবাদমাধ্যমকেও দিয়েছি। সেখানে তো স্পষ্ট যে আমি এ বিষয়টি জানিই না। সেও বার বার বলেছে, এই ঘটনার সঙ্গে মিলা আপার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। কিন্তু তাকে জোর করে আমার নাম বলানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।
এর আগে গত ৬ জুন এসিড হামলার অভিযোগে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় সংগীতশিল্পী মিলার বিরুদ্ধে তার সাবেক স্বামী পাইলট এসএম পারভেজ সানজারির বাবা এসএম নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় মিলা ছাড়াও তার সহকারী জন পিটার হাওলাদার কিমকে আসামি করা হয়। এসিড অপরাধ দমন আইনের ৫ (খ) ও ৭ ধারায় মামলা করা হয়। মামলার এজাহারে বলা হয়, গত ২ জুন রাত আটটার দিকে উত্তরার তিন নম্বর সেক্টর এলাকার ৭/বি সড়কে পারভেজের গায়ে এসিড নিক্ষেপ করা হয়। তখন মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন পারভেজ।
প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে বৈমানিক পারভেজ সানজারিকে বিয়ে করেন মিলা। বছরখানেক আগে বিয়ে বিচ্ছেদ হয় তাদের। এরপর থেকে নানা আলোচনায় আসেন মিলা ও পারভেজ। দু’জনই পরস্পরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করতে থাকেন।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop