মহানগর সময়পাহাড়ধসের শঙ্কায় আশ্রয়কেন্দ্রে ৫ শতাধিক মানুষ

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
খাগড়াছড়িতে গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে চেঙ্গী নদীর পানি বেড়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বান্দরবানেও বেড়েছে সাঙ্গু ও মাতামুহুরী নদীর পানি। টানা বর্ষণে পাহাড়ধসের শঙ্কায় রাঙামাটিতে আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেয়া হয়েছে ৫ শতাধিক মানুষকে।
চেঙ্গী নদীর পানি ঢুকে পড়েছে খাগড়াছড়ি সদরের মুসলিমপাড়া, গঞ্জপাড়া ও বাঙালকাঠি এলাকায়। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন সহস্রাধিক পরিবার। এছাড়া, পৌর শহরের শালবাগান এলাকায় পাহাড় ধসে ভেঙে গেছে বেশ কিছু বাড়িঘর।
বাসিন্দাদের নিরাপদে সরে যেতে মাইকিং করেছে জেলা প্রশাসন। এরইমধ্যে পাহাড় ধসে প্রাণহানি ঠেকাতে জেলায় ৪৫টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে।
বান্দরবান
কেরাণীহাট সড়কের বড়দোয়ার এলাকায় সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় দ্বিতীয়দিনের মতো বান্দরবানের সাথে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কক্ষ খোলার পাশাপাশি ১শ ২৬টি আশ্রয় কেন্দ্র খুলেছে জেলা প্রশাসন। এছাড়া রোমা উপজেলায় পানিতে ভেসে ২জন নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে। টানা প্রবল বর্ষণে জেলার সাঙ্গু ও মাতামুহুরী নদীর পানিও বেড়েছে। এতে সদর ছাড়াও লামা ও আলীকদমের বহু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।
রাঙামাটি
রাঙামাটিতে পাহাড়ধসের শঙ্কায় রুপনগর, শিমুলতলী ও ভেদভেদী এলাকায় ৫টি আশ্রয়কেন্দ্র খুলেছে জেলা প্রশাসন। এরইমধ্যে সরিয়ে আনা হয়েছে ৫ শতাধিক মানুষকে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop