ksrm

মহানগর সময়যুক্তরাষ্ট্রে ভাইয়ের নামে বাড়ি ক্রয় সিনহার

সময় সংবাদ

fb tw
যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে নিজের আপন ছোট ভাইয়ের নামে বাড়ি কিনেছেন সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। গত বছর জুনে তার ছোট ভাই অনন্ত কুমার সিনহা আনুমানিক দুই কোটি ৩০ লাখ নগদ টাকায় এ বাড়িটি কেনেন। এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নথিপত্রে প্রমাণ পাওয়া গেছে। প্রবাসী বিশিষ্টজনেরা বলছেন, এই অর্থের উৎসের সন্ধান করা জরুরি। তবে সময় সংবাদের কাছে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা।
চার হাজার স্কয়ার ফিটের তিনতলা এক বাড়ির বাসিন্দা সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা ওরফে এস কে সিনহা। ঠিকানা যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সির প্যাটারসন এলাকার ১৭৯ জেসপারস্ট্রিট।  গুঞ্জন ছিল এই বাড়িটি নগদ দুই লাখ ৮০ হাজার ডলারে কিনেছেন সাবেক এই বিচারপতি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ২ কোটি ৩০ লাখ টাকা। 
নথিপত্র ঘেঁটে এর অনেকটা প্রমাণও মিলেছে। দলিলপত্রে দেখা গেছে, এস কে সিনহা যুক্তরাষ্ট্রে আসার পর এ বছরের জুনে বাড়িটি কিনেছেন। ছোট ভাই অনন্ত কুমার সিনহার মাধ্যমে প্রায় দুই কোটি ৩০ লাখ নগদ টাকায় এ বাড়িটি কেনেন তিনি। কাগজপত্রে ছোট ভাই বাড়ির মালিক হলেও ক্রেতার ঠিকানা ব্যবহার করা হয়েছে যেটি সেখানে মাস দুয়েক আগপর্যন্ত ভাড়া ছিলেন বিচারপতি সিনহা। তবে, বর্তমানে ভাইয়ের নামে কেনা বাড়িতেই সস্ত্রীক বসবাস করছেন তিনি।
তার বাসায় তাকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি কোনো প্রশ্নের উত্তর দেননি। তার সঙ্গে সংক্ষিপ্ত কথোপকথনটি তুলে ধরা হলো। 
 
- স্যার, আপনার আয়কর রিটার্ন, বাড়িকেনা এগুলো নিয়ে বিভিন্ন অভিযোগ আছে, এগুলো নিয়ে আপনার অভিমত কী? 
- এই বাড়ি আমার নামে না। এটা বললেই হবে না। সরকার প্রমাণ করুক। এরপর দেখা যাবে। 
- এই বাড়িটি আপনার ভাইয়ের নামে বলা হয়েছে।  
- আমি সরি, আমি এই প্রশ্নের উত্তর দেব না বলেছি। 
বাড়ি কেনার এই অর্থের উৎস কী তা খতিয়ে দেখার দাবি উঠেছে। বিজ্ঞানী নুরুন নবী মনে করেন একজন প্রধান বিচারপতির দুর্নীতি জাতির জন্য কলঙ্কের। 
তিনি বলেন, ক্যাশ টাকা দিয়ে সাধারণত এই দেশে বাড়ি কেনা হয় না। 
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের কোনো লেখকের বা পাঠকের লাখ লাখ কপি পিডিএফ করে আমাজন থেকে ফ্রি বিলানো হয় না। এটার পেছনে অবশ্যই কোনো রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে।
বিচারপতির অপসারণ সংক্রান্ত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল ঘোষণা করে বিতর্কিত রায় দেয় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। মূল রায়টি লিখেন বিচারপতি এস কে সিনহা। নানা আলোচনা ও সমালোচনার মধ্যে গত বছরের অক্টোবরে ছুটিতে বিদেশে চলে যান এসকে সিনহা। এরপর নৈতিক স্খলনসহ নানা অভিযোগ এনে অন্য বিচারপতিরা তার সঙ্গে একই বেঞ্চে বসতে অস্বীকৃতি জানালে বিদেশে থাকা অবস্থায়ই ১০ নভেম্বর পদত্যাগ করেন। এরপর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন তিনি।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop