মহানগর সময়গৃহকর্মীকে ইস্ত্রি-রড গরম করে ছ্যাকা দিয়ে পাশবিক নির্যাতন

সময় সংবাদ

fb tw
রাজধানীর কচুক্ষেতে ১৫ বছর বয়সী এক গৃহপরিচারিকাকে পাশবিক নির্যাতন করা হয়েছে। নির্যাতনের পর চিকিৎসা না করে তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতিতাকে গুরুতর অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল ভর্তি করা হয়েছে। তার শরীরে ইস্ত্রি ও গরম রডের ছ্যাকার চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
চার মাস আগে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট কচুক্ষেত এলাকায় মীর ওরফে মাহী বেগমের বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজ নেয় ময়মনসিংহের লিমা আকতার। স্বজনদের দাবি, কাজ শুরুর কয়েকদিন পরে বিভিন্ন অজুহাতে তাকে মারধর করতো মাহী বেগম ও তার ছেলে ওয়াদা। সম্প্রতি তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ইস্ত্রি ও রড গরম করে ছ্যাকা দেয়া হয়। গৃহকর্তী ও তার ছেলের সঙ্গে লিমার ওপর নির্যাতনে যোগ দেয় আরেক গৃহপরিচারিকা পিংকিও। মঙ্গলবার (০৯ জুলাই) সন্ধ্যায় লিমাকে গুরুতর অবস্থায় হালুয়াঘাটের একটি বাসে উঠিয়ে দেন মীম বেগম। পরে বুধবার সকালে তাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
নির্যাতিত লিমা বলেন,'রোজার মাস পুরাটাই আমাকে মেরেছে। আমাকে আয়রন দিয়ে ছ্যাকা লাগাইছে। এছাড়া রড দিয়ে হাতে ও মাথায় মেরেছে।'
লিমার মা বলেন, 'আমার মেয়েকে এভাবে যারা মেরেছে, তাদের শাস্তি চাই। বিচার চাই।'
পরে তাকে স্থানান্তর করা হয় ময়মনসিংহ মেডিকেলে। অমানুষিক নির্যাতনে লিমার দুটি দাঁতও ভেঙে গেছে। তার শরীরে গভীর ক্ষত রয়েছে বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক।
সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. রবীন বলেন,  'আঘাত কিছু নতুন ও পুরাতন রয়েছে। কিছু পরীক্ষা দিয়েছি, আসলে জানতে পারবো। তবে লিমা কিছুটা ভাল আছে।'
নির্যাতিত লিমা আক্তার, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটের দর্শারপাড় গ্রামের হাবিবুর রহমানের মেয়ে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop