ksrm

বাংলার সময়পর্যাপ্ত ত্রাণ পাচ্ছে না পানিবন্দিরা

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে বিভিন্নস্থানে নদনদীর পানি বাড়া অব্যাহত রয়েছে। এসব এলাকার নদী তীরবর্তী নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যাওয়ায় পানিবন্দি অবস্থায় দিন পার করছেন হাজার হাজার মানুষ। সংকট দেখা দিয়েছে খাবার ও বিশুদ্ধ পানির। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ ও শুকনা খাবার বিতরণ করা হলে প্রয়োজনের তুলনায় তা অপ্রতুল বলে জানান স্থানীয়রা।
কুড়িগ্রাম
গত কয়েকদিনের টানা বর্ষণে কুড়িগ্রামের বেশিরভাগ নদ নদীতে পানি বেড়েছে। ধরলার পানি বেড়ে সদর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের অর্ধশতাধিক গ্রাম তলিয়ে গেছে। পানিবন্দি প্রায় ১৫ হাজার মানুষের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে। বাড়িঘর ডুবে যাওয়ায় পরিবার পরিজন, গবাদিপশু নিয়ে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন। কুড়িগ্রাম-যাত্রাপুর সড়কের নির্মাণাধীন সেতুর বিকল্প সড়কটি পানি উঠে যাওয়ায় যাত্রাপুরের সঙ্গে সদরের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। ঝুঁকি নিয়ে নৌকা দিয়ে পারাপার হচ্ছেন এলাকাবাসী।
লালমনিরহাট
কয়েকদিন ধরেই লালমনিরহাটে তিস্তা নদী তীরবর্তী আদিতমারী, হাতিবান্ধাসহ ৪ উপজেলার চর, দ্বীপচর ও নিচু এলাকার মানুষ পানিবন্দি হয়ে আছে। ১৫ গ্রামের প্রায় ২৫ হাজার মানুষ মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন। দেখা দিয়েছে খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকট।
নীলফামারী
নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার শৈলমারি ইউনিয়নে বুড়ি তিস্তা ও তিস্তার সংযোগস্থলের ডান তীরে ১৩ কিলোমিটার বাঁধের প্রায় ১শ ২০ মিটার ভাঙন দেখা দিয়েছে। আতঙ্কে দিন পার করছেন নদী পাড়ের মানুষ। এরই মধ্যে বালুর বস্তা ও জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙন রোধে কাজ শুরু করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।
এছাড়া গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের চরাঞ্চলের নিচু এলাকায় পানিবন্দি রয়েছে শত শত মানুষ।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop