মহানগর সময়পাহাড়ের দু'টি পয়েন্ট থেকে ১শ’ ঘর উচ্ছেদ

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
বর্ষায় পাহাড় ধসে প্রাণহানি ঠেকাতে চট্টগ্রামের পাহাড়ে অবৈধভাবে বসবাসকারীদের উচ্ছেদে অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসন। লালখান বাজারের ধসে পড়া পাহাড়ের দু'টি পয়েন্ট থেকে একশ'র বেশি বসত ঘর উচ্ছেদ করেছে জেলা প্রশাসন। মূলত গরীব উল্লাহ শাহ মাজারের লোকজন এসব ঘর ভাড়া দিয়েছিলো বলে অভিযোগ করেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা।
এমনিতে বালুর পাহাড় অল্প বৃষ্টিতেই ধসে পড়ে। আর এসব পাহাড়ের একেবারেই নিচে উঠে গেছে শত-শত কাঁচা পাকা বসত ঘর। এর মধ্যে গত এক সপ্তাহের টানা বর্ষণে চরম বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে এসব পাহাড়। গত শনিবার সকালে দু'ঘন্টার ব্যবধানে লালখান বাজার কুসুমবাগ আবাসিক এলাকার পাশেই একশ গজের মধ্যে দু'টি পাহাড় ধসে পড়ে।
এতে এক শিশুসহ দু'জন আহত হয়। শেষ পর্যন্ত জেলা প্রশাসন এই পাহাড়ের পাশে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকায় বসত ঘরগুলো উচ্ছেদের নোটিশ দেয়। সে অনুযায়ী সকাল থেকে শুরু হয় ঘরগুলো সরিয়ে নেয়ার কাজ। তার আগে বিচ্ছিন্ন করা হয় বিদ্যুৎ ও পানির সংযোগ।
উচ্ছেদের কবলে পড়া নিন্ম আয়ের মানুষের অভিযোগ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার লোকজনদের না সরিয়ে অন্যায়ভাবে তাদের সরানো হচ্ছে তাদের। মূলত আশ-পাশের কিছু প্রভাবশালী পাহাড়ের নিচেই বসত ঘরগুলো তৈরি করে নিন্ম আয়ের মানুষদের কাছে ভাড়া দিয়েছিলো।
উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নেয়া জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দাবি, গত এক বছরের মধ্যে লালখান বাজার এবং কুসুমবাগ আবাসিক এলাকার পাশে চারশ'র বেশি ঝুঁকিপূর্ণ বসত ঘর তৈরি করা হয়েছে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop