বাংলার সময়ত্রিশ বছরের রেকর্ড ভাঙা বন্যায় দিশেহারা গাইবান্ধাবাসী

হেদায়াতুল ইসলাম বাবু

fb tw
ত্রিশ বছরের রেকর্ড ভাঙা বন্যায় দিশেহারা বানভাসিরা। স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে কচুরিপানার মতো ভাসমান মানুষগুলো নদীর একুল থেকে ওকুল হাতড়ে ফিরছে একটু কিনারার আশায়। ত্রাণ বলতে চাল, চিড়া আর গুড়। তাও আবার সবার ভাগ্যে জোটেনি। নদনদী বেষ্টিত উত্তরে বন্যা স্বাভাবিক দুর্যোগ হলেও কর্তৃপক্ষের আগাম প্রস্তুতি না থাকায় এমন পরিস্থিতি বলে মত সংশ্লিষ্টদের।
বন্যা কবলিত গাইবান্ধার বানভাসিদের অভিযোগ সবখানেই। সচেতন মহল বলছে, বন্যা এ অঞ্চলের স্বাভাবিক দুর্যোগ হলেও কর্তৃপক্ষের আগাম প্রস্তুতি থাকেনা। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি অকার্যকর হওয়ায় পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খেতে হয় তাদের।
সেই সাথে বানভাসিদের প্রয়োজন বিবেচনায় এনে ত্রাণ সূচি প্রণয়নের বিষয়টি বরাবরই উপেক্ষিত বলে অভিযোগ করেন গাইবান্ধা সিপিবি'র সাবেক সভাপতি ওয়াজিউর রহমান রাফেল এবং সমাজতান্ত্রিক কৃষক ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটি ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নজুর আলম মিঠু।
প্রাকৃতিক দুর্যোগে বিপর্যস্ত মানুষগুলোর মধ্যে অসম ত্রাণ বণ্টনের প্রশ্নে জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন বললেন, ত্রাণ বিতরণে নির্দিষ্ট কোনো পরিমাপ নেই।
উজানের ঢলে চরদ্বীপচরসহ ঘাঘট ব্রহ্মপুত্রের বাঁধের আঠারোটি পয়েন্ট ধসে গাইবান্ধার ৭ উপজেলার প্রায় পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ পানিবন্দি। তাদের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এক হাজার মেট্রিক টন চাল, সাড়ে চৌদ্দ লাখ টাকা আর পাঁচ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop