মহানগর সময়ঈদের শুরু যখন সন্তানকে শেষ বিদায় দিয়ে

সময় সংবাদ

fb tw
যখন সবাই ঈদের খুশিতে ব্যস্ত তখন শহরের কোন কোন ঘরে স্বজন হারানোর দীর্ঘশ্বাসে ভারী পরিবেশ। বলছি, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া স্কুল ছাত্র রাইয়ান ও গতরাতে মারা যাওয়া আড়াই বছরের শিশু সামিয়ার পরিবারের কথা। ঈদের খুশি ছুঁয়ে যেতে পারেনি পরিবারের সদস্যদের।
কোন কোন ঘরে ঈদের চাঁদের আলো পৌঁছায় না। সকাল শুরু হয় না "মা" শব্দ শুনে। দিনমজুর বিউটির পরিবারের ঈদের শুরু ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আড়াই বছরের একমাত্র সন্তান সামিয়াকে শেষ বিদায় দিয়ে। পুরো ভালোবাসা দিয়ে কেনা সামিয়ার ঈদের সাদা রংয়ের জামাটি দিয়েই মুছে দিয়েছেন সন্তানের নিথর দেহ।
শহরের আরেক কোণে প্রাণহীন রাইয়ানের বাড়ি। সামাজিকতা আছে, পশু কুরবানিও হচ্ছে। তবে ঈদের নামাজ একাই পড়ে ফিরতে হয়েছে রাইয়ানের বাবাকে। ঘরের কোথাও নেই রাইয়ানের উচ্ছলতা। ভাইবোনেরা এখনো মানতে নারাজ, রাইয়ান নেই।
এখন সামিয়া ও রাইয়ানের পরিবারের একটিই চাওয়া, আর যেনো কোন মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা না যায়। অন্তিম যাত্রার তালিকা যেনো আর দীর্ঘ না হয়।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop