বাংলার সময়কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে পর্যটকের বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাস

সুজাউদ্দিন রুবেল

fb tw
somoy
বৃষ্টি উপেক্ষা করে কক্সবাজারে এখন পর্যটকের বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাস। তবে টানা বৃষ্টিতে সৈকত এলাকার রাস্তাঘাট পানিতে ডুবে যাওয়ায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ভ্রমণ পিপাসুদের। এ অবস্থায় দ্রুত সময়ের মধ্যে ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও রাস্তাঘাট মেরামতের দাবি পর্যটন ব্যবসায়ীদের।
ঈদের টানা ছুটি শেষ হলেও সৈকত শহর কক্সবাজারে কমতি নেই পর্যটকের। সৈকতের কলাতলী, সুগন্ধা, সী গাল, লাবণী ও শৈবাল পয়েন্টের সাগর তীর কানায় কানায় পূর্ণ পর্যটকে। টানা বৃষ্টি এবং উত্তাল সাগরও পর্যটকদের সাগরের নোনাজল থেকে উঠাতে পারেনি।
বালিয়াড়ি থেকে সাগরের নোনাজল সবখানেই ভ্রমণপিপাসুদের বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাস।
পর্যটকরা জানান, ঈদের ছুটিতে কক্সবাজার এসেছি। এখানে এসে আমরা খুব মজা করতেছি। পরিবার নিয়ে ঘুরতে এসেছি। খুবই ভালো লাগছে।
টানা বৃষ্টির পানিতে সয়লাব সৈকতের এলাকার রাস্তাঘাটগুলো। সাথে যুক্ত হয়েছে ময়লা-আবর্জনা ও খানা-খন্দক। ফলে ভ্রমণে এসে দুর্ভোগে পড়ছেন পর্যটকরা।
ভোগান্তি পড়া পর্যটকরা জানান, প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তা পানি নিচে। এতে আমাদের খুব কষ্ট হচ্ছে। এখানে একবছর রাস্তা যেমন ছিল, এখনো তেমন রয়েছে কোনো পরিবর্তন হয়নি।
শিগগিরই পর্যটন এলাকার ড্রেনেজ ব্যবস্থা সংস্কার ও রাস্তাঘাট মেরামতের দাবি পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের।
ব্যবসায়ীরা জানান, পানি কারণে ক্রেতা আসতে পারে না। সেজন্য আমাদের ব্যবসা খুবই খারাপ অবস্থা।
পর্যটকরা কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের পাশাপাশি পর্যটন স্পট দরিয়ানগর, হিমছড়ি, ইনানী সৈকত, মেরিন ড্রাইভ সড়ক ও রামু বৌদ্ধ বিহারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এসব স্পটগুলোতেও নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে বলে জানায় ট্যুরিস্ট পুলিশ।
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop