খেলার সময়প্রথমবারের মত ফিফার রেফারির খাতায় দেশের দুই নারী

সময় সংবাদ

fb tw
নারীশক্তিই যেন আদ্যাশক্তি। তাই হয়তো কবি নজরুল বলেছিলেন পৃথিবীতে যা কিছু মহান, চির কল্যাণকর অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর।
হ্যাঁ। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে নারীদের যে পথচলা, সময়ের কাঁটা ঘুরে সেটি যেন আরও সুপ্রসন্ন। আর দেশের ক্রীড়াঙ্গনে নারীদের উত্থানের গল্পটাও তো রূপকথার মতোই। এবার নারীদের সাফল্যের ডানায় যুক্ত হলো নতুন পালক।
দেশের হয়ে প্রথমবারের মতো ফিফার রেফারির খাতায় নাম লিখিয়েছেন দুই নারী। তাদেরই অন্যতম একজন সালমা আক্তার মনি। শুরুটা অ্যাথলিট হিসেবে। খেলেছেন ফুটবলও। ২০১৩ সালে নাম লেখান রেফারি হিসেবে। এবার অপেক্ষা আন্তর্জাতিক ম্যাচে বাঁশি বাজানোর হাতছানি।
বাংলাদেশের রেফারি সালমা আক্তার মনি বলেন, আমি ও জয়া আপু দুজনের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছি। সেই সাথে জীবনের একটা অনেক দিন পর পূরণ হয়েছে। এটা শোনার অবশ্যই ভালো লাগছে।
রেফারিংয়ের শুরুর গল্পটা খুব একটা আনন্দের ছিলো না। তবে হাল ছাড়েননি নেত্রকোনার এই নারী। স্বপ্নটা পুষে রেখে এগিয়েছেন ধীর পায়ে। ফিফা রেফারি হবার ফিটনেস টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে তাই দারুণ রোমাঞ্চিত।
সালমা আক্তার মনি আরো বলেন, এলিটও ট্রাই করবো। যদিও হয় তাহলে ইচ্ছা আছে, ওয়ার্ল্ডকাপে ম্যাচ পরিচালনা করার।
ফিফার অনুমতি মিললে ২০২০ সালের জন্য পাবেন আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনার সুযোগ। তাই নির্ভুল রেফারিং দিয়ে যেতে চান সাফল্যের চূড়ায়।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop