আন্তর্জাতিক সময়‘নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিলে চূড়ান্ত চুক্তিতে সই করবে ইরান’

ওয়েব ডেস্ক

fb tw
সব নিষেধাজ্ঞা তুলে না নেয়া পর্যন্ত তেহরান কোন চুক্তিতে সই করবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন ইরানের প্রধানমন্ত্রী হাসান রুহানি। দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি বলেছেন, এখনও চূড়ান্ত চুক্তি না হওয়ায় একে সমর্থন কিংবা প্রত্যাখ্যান কোনটিই করছেন না তিনি। তবে চূড়ান্ত চুক্তি হলে সঙ্গে সঙ্গেই ইরানের ওপর থেকে সব নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। এদিকে, রিপাবলিকান সিনেটর টম কটন বলেছেন, সামরিক অভিযান চালিয়ে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে সৃষ্ট জটিলতার দ্রুত অবসান সম্ভব।
গত সপ্তাহে সুইজারল্যান্ডের লুসানেতে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে ছয় বিশ্ব শক্তির সঙ্গে সমঝোতার পর প্রথমবারের মত এ বিষয়ে মন্তব্য করেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি।
বৃহস্পতিবার সরাসরি এক টিভি অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে খামেনি জানান, এখনও চূড়ান্ত চুক্তি না হওয়ায় একে সমর্থন কিংবা বিরোধিতা কোনটিই করছেন না তিনি। তবে চুক্তি বাস্তবায়ন করতে হলে অবশ্যই তুলে নিতে হবে ইরানের ওপর পশ্চিমা বিশ্বের আরোপিত সব ধরনের নিষেধাজ্ঞা।
তিনি বলেন, 'আমি চুক্তিকে সমর্থনও করছি না, এর বিরোধিতাও করছি না, কারণ এখনও কোন কিছুই চূড়ান্ত হয়নি। পুরো বিষয়টিই আসলে নির্ভর করছে একে অপরের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে একটি চূড়ান্ত সমঝোতার ওপর।'
এ সময় খামেনি আরো বলেন, প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির ওপর তার আস্থা ও বিশ্বাস রয়েছে। তবে, পরমাণু চুক্তির আড়ালে ইরান বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অন্য কোন উদ্দেশ্য থাকতে পারে বলেও সতর্ক করে দেন তিনি।
এদিকে, প্রায় একই রকম মন্তব্য করে দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, ইরানের ওপর থেকে পশ্চিমা বিশ্ব সব নিষেধাজ্ঞা তুলে না নেয়া পর্যন্ত কোন অবস্থাতেই চুক্তিতে সই করবেনা তেহরান। এসময় তিনি আরো বলেন, পুরো বিশ্ব বুঝতে পেরেছে কোন নিষেধাজ্ঞার কাছেই মাথা নত করে না ইরান।
হাসান রুহানি বলেন, 'চূড়ান্ত চুক্তি বাস্তবায়নের দিনই ইরানের ওপর থেকে সব নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে হবে তা না হলে আমরা কোন চুক্তিতে সই করবো না। যুক্তরাষ্ট্র বুঝতে পেরেছে একটি প্রগতিশীল ইসলামিক প্রজাতন্ত্র রাষ্ট্র হিসেবে ইরানের শাসন ব্যবস্থাকে কিছুতেই বদলে ফেলা সম্ভব হবে না।'
এদিকে, ওবামা প্রশাসন যখন কূটনৈতিক পন্থায় ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা সমাধানের প্রচেষ্টা চালাচ্ছে তখন তেহরানের বিরুদ্ধে সরাসরি সামরিক পদক্ষেপ গ্রহণের পক্ষপাতী অধিকাংশ রিপাবলিকান। আবারো তারই প্রতিধ্বনি শোনা গেল রিপাবলিকান সিনেটর টম কটনের বক্তব্যে।
মঙ্গলবার এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ইরানের পারমাণবিক স্থাপনাগুলোতে সরাসরি হামলার মাধ্যমে মাত্র কয়েকদিনেই দেশটির বিরুদ্ধে এ লড়াইয়ে জয়ী হওয়া সম্ভব।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop