অন্যান্য সময়বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকায় যারা

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
অর্থ। মানুষের জীবনের চাহিদা মেটায়। প্রতিনিয়ত মানুষ অর্থের পেছনে ছুটছে। অর্থের জন্যই মানুষের এতো ছুটাছুটি-পেরেশানি। কে না চায় মিলিয়ন-বিলিয়ন অর্থ উপার্জন করতে।
পৃথিবীতে এমন অনেক মানুষ আছে যারা অভাবের তাড়নায় ২ বেলা পেট পুরে খেতে পারে না। আবার এমন মানুষও আছে যাদের মোট সম্পদ পুরো একটা দেশের সব মানুষের সম্পদ থেকেও বেশি। বলা হয়ে থাকে পৃথিবীর ধনী ১% মানুষের যত সম্পদ আছে তা পৃথিবীর বাকি ৯৯% মানুষের মোট চাইতেও বেশি।
আসুন জেনে নেই বিশ্বের সবচেয়ে ধনীর তালিকায় কারা
১। জেফ বেজোসঃ পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ইকমার্স ওয়েবসাইট এমাজনের উদ্যোক্তা ও সিইও জেফ বেজোস পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ১১২ বিলিয়ন ডলার। জেফ এমাজন শুরু করেন তার বেডরুমে। এমাজন প্রথমে একটা অনলাইক ভিত্তিক বই বিক্রির দোকান ছিল। আজকে সেখান থেকেই জেফ পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী মানুশে পরিণত হয়েছেন।
২। বিল গেটসঃ বিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের মোট সম্পদের পরিমাণ ৯০ বিলিয়ন ডলার। ১৯৭৫ সালে বিল গেটস ও পল এলেন মাইক্রোসফট শুরু করেন। তিনি ২০১৪ সাল পর্যন্ত মাইক্রোসফটের ম্যানাজিং ডিরেক্টর পদে ছিলেন। এখন তিনি একজন বোর্ড মেম্বার হিসেবে আছেন। তিনি এখন অনেক রকম সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত আছেন।
৩। ওয়ারেন বাফেটঃ ওয়ারেন বাফেট এই সময়ের একজজ জনপ্রিয় উদ্যোক্তা, ব্যবসায়ী ও বক্তা। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ৯১ বিলিয়ন ডলার। তিনি মাত্র ১১ বছর বয়সে তার প্রথম বিনিয়োগ করেন। তার এখন ৬০ টিরও বেশী কোম্পানি রয়েছে।
৪। বার্নার্ড আর্নল্টঃ খ্যাতনামা ফ্যাশন প্রতিষ্ঠান লুই ভিটনের সি ই ও আর্নল্টের মোট সম্পদের পরিমাণ ৭৫ বিলিয়ন ডলার। তিনি তার জীবনের প্রথমে একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। এরপর নিজের পরিবারের ব্যবসায় ডিরেক্টর পদে অংশগ্রহন করে আজকে তিনি সেরা ধনীদের মধ্যে একজন।
৫। মার্ক জুকারবার্গঃ জুকারবার্গ ফেসবুকের একজন উদ্যোক্তাদের মধ্যে একজন। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ৭৪ বিলিয়ন ডলার। মার্ক জুকারবার্গ সবচেয়ে কম বয়সে বিলিয়নিয়ার হওয়া মানুষ দের মধ্যে একজন। তার কলেজের ক্যাম্পাসে ছোট পরিসরে তিনি ফেসবুক চালু করেন আজকে ফেসবুক ৪০০ বিলিয়ন ডলারের কোম্পানি হয়ে গিয়েছে।
৬। আমান্সিও অর্তেগাঃ বিখ্যাত পোশাকের ব্র্যান্ড জারা ফ্যাসনের উদ্যোক্তা অর্তেগার মোট সম্পদের পরিমাণ ৭০ বিলিয়ন ডলার। তার কোম্পানির সারা পৃথিবীতে ৭০০০ শাখা আছে। ২০১১ সালে তিনি কোম্পানির সি ই ও পদ থেকে অবসর নেন।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop