আন্তর্জাতিক সময়ধর্মঘটে ব্রিটিশ এয়ারের ১৭শ’ ফ্লাইট বাতিল

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
টানা দ্বিতীয় দিনের মতো ব্রিটেনে চলছে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের পাইলট ও ইউনিয়নের ধর্মঘট। এতে ১৭শ'র বেশি ফ্লাইট বাতিল হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন অন্তত ২ লাখ ৮০ হাজার যাত্রী।
ধর্মঘটের কারণে প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুণ্ণ হচ্ছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সংকট সমাধানে আলোচনায় বসার আহ্বানও জানিয়েছে তারা। তবে লভ্যাংশের সুষ্ঠু বণ্টন করা হলেই কেবল আন্দোলন স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছেন ইউনিয়ন নেতারা।
টানা দু'দিন ধরে ব্রিটেনের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের পাইলটদের ধর্মঘটের কারণে এখন অনেকটাই ফাঁকা লন্ডনের হিথ্রো ও গ্যাটউইক বিমানবন্দর। নেই স্বাভাবিক কর্মব্যস্ততা, রানওয়েতে অলস পড়ে আছে অত্যাধুনিক সব উড়োজাহাজ।
পাইলটদের দাবি, মুনাফা থেকে আরও লভ্যাংশ দিতে হবে তাদের। দাবি মানা না হলে, আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর ফের ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি দিয়েছে ব্রিটিশ এয়ারলাইন পাইলট অ্যাসোসিয়েশন।
ব্রিটিশ এয়ারলাইন পাইলট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ব্রায়ান স্ট্রুটন বলেন, ৯ মাস ধরে সমঝোতার চেষ্টার পরও দুঃখজনকভাবে আমাদের ধর্মঘটে নামতে হয়েছে। কারণ, ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ আপসে রাজি নয়। তারা আমাদের কোনো কথাই শোনেনি। ১৬০ কোটি ডলারের বেশি মুনাফা তারা করেছে। এর ন্যায্য ভাগ আমাদেরও দিতে হবে, যা আমরা পাচ্ছি তা যথেষ্ট নয়। কর্মসূচির জেরে বিরোধ নিষ্পত্তির একটি উপায় বের হবে বলে আমরা আশাবাদী।
ধর্মঘটের কারণে লাখ লাখ গ্রাহককে বিকল্প ভ্রমণের ব্যবস্থা করতে হয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, বর্তমান বেতনই ন্যায্য, তাই ধর্মঘটও বেআইনি। যদিও সংকট সমাধানে আলোচনার টেবিলে বসার আহ্বান তাদের।
ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অ্যালেক্স ক্রুজ বলেন, এমন ধর্মঘটে আমরা হতাশ। আমরা যাত্রীদের সর্বোচ্চ সুবিধা দিয়ে থাকি কিন্তু আজ তাদেরই চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এটা আমাদের প্রতিষ্ঠানের জন্য অশুভ। এছাড়া অনেক পাইলটই কাজে যোগ দিতে চান, কর্মসূচির কারণে পারছেন না। এখনই বলা যাচ্ছে না কী পরিমাণ ক্ষতি আমাদের হলো, তবে আহ্বান জানাবো সংকট আর দীর্ঘায়িত না করে আলোচনায় বসার।
এদিকে উভয় পক্ষকে বিরোধ নিষ্পত্তির আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র।
গত তিন বছরে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ তাদের পাইলটদের বেতন ১১ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছে। কিন্তু পাইলটদের মতে এই বৃদ্ধি কোম্পানির লাভের তুলনায় কিছুই নয়। এছাড়া কর্মকর্তারা পাইলটদের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি বেতন ও সুবিধা ভোগ করেন। ফলে বিষয়টিকে সম্মানের লড়াই হিসেবেই দেখছেন বিমান চালকরা।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop