ksrm

পশ্চিমবঙ্গ‘পশ্চিমবঙ্গে নাগরিক পঞ্জির বিষয়ে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ মোদি সরকার’

কলকাতা ব্যুরো

fb tw
somoy
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি ফের স্পষ্ট করে বলেছেন পশ্চিমবাংলায় নাগরিক পঞ্জি করার বিষয়ে মোদি সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।
মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) কলকাতায় মোদি সরকারের ১০০ দিন উপলক্ষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এ কথা বলেন স্মৃতি। এ সময় তুলে ধরেন ১০০ দিনে মোদি সরকারের সাফল্যের খতিয়ান। কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ থেকে নাগরিক পঞ্জি সবই সরকারের সাফল্য হিসেবে ব্যাখ্যা করেন স্মৃতি।
জাতীয় নাগরিক পঞ্জির নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রসঙ্গেই স্মৃতি বলেন, এক সময় ভুয়ো ভোটার আটকাতে সচিত্র ভোটার কার্ডের পক্ষে সওয়াল করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, এটা তার দ্বিচারিতা। কিন্তু সচিত্র ভোটার কার্ডের আন্দোলনের সঙ্গে নাগরিক পঞ্জির কী সম্পর্ক এমন প্রশ্ন এড়িয়ে যান স্মৃতি। এ সময় বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের আটকাতে পশ্চিমবঙ্গসহ গোটা দেশেই নাগরিক পঞ্জি হবে, এটা বিজেপির ঘোষিত সিদ্ধান্ত।
সাংবাদ সম্মেলনে কাট মানি প্রসঙ্গেও তৃণমূলের সমালোচনা করে স্মৃতি বলেন, রাজ্য সরকার যে দুর্নীতিপরায়ন, তা কাটমানি নিয়ে তাদের অবস্থান থেকেই স্পষ্ট। কাটমানি ফেরত নেয়ার জন্যও এ রাজ্যে আক্রান্ত হচ্ছেন সাধারণ মানুষ।
স্মৃতির অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিমের পাল্টা কটাক্ষ, সাস ভি কভি বহু থি। স্মৃতি আজ যা বলছেন, কাল নিজেই বলবেন তা ঠিক নয়। এসব কথাকে বেশি গুরুত্ব না দেয়াই ভালো।
এদিকে, সোমবার রাতে (৯ সেপ্টেম্বর) কলকাতার অদূরে ব্যারাকপুরে বামফ্রন্টের এক রাজনৈতিক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিমান বসু। মঞ্চের বাইরে সাংবাদিকদের কাছে নরেন্দ্র মোদি সরকারের কড়া সমালোচনা করেন। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু বলেন, বাংলা ভাগ হয়েছে, অনেক মানুষ ওপার থেকে এপার বাংলা এসেছেন। তাদের কি কাগজপত্র আছে, কি নেই এ নামে যদি তাদের বহিষ্কার করার চেষ্টা করে বা বন্দি সেলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তাহলেও বাংলার মানুষ মেনে নেবে না। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ১০০ দিনে যত মানুষকে কাঁদিয়েছেন, ১০০ দিনে উনি (মোদি) মানুষের পেটে যত লাথি মেরেছেন, ১০০ দিনে কর্মরত মানুষকে কর্মচ্যুত করেছেন তার কিন্তু তুলনা ভূ-ভারতে নেই।
এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে রাস্তায় নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ঠিক এসময়ে এ শহরে এসে ইরানি এসব কথা জানালেন।
অন্যদিকে, যে প্রক্রিয়ায় আসামে নাগরিক পঞ্জি হয়েছে তার বিরোধিতা করে বুধবার ও বৃহস্পতিবার সিথি থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত মিছিল করার কথা রয়েছে তৃণমূল। মুখ্যমন্ত্রীরও সেই মিছিলে যোগ দেয়ার কথা। ইতিমধ্যেই জাতীয় নাগরিক পঞ্জির প্রতিবাদে রাজ্যের ব্লকে ব্লকে মিছিল এবং সভা করেছে তৃণমূল। বিধানসভাতেও নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে বিরোধী বাম ও কংগ্রেসের সঙ্গে তৃণমূল ঐক্যমত্য হয়ে প্রস্তাব পাস করেছে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop