মহানগর সময়বিদ্যুতের পুরনো লাইন ও ট্রান্সফর্মারে ঝুঁকিতে রাজধানীবাসী

সময় সংবাদ

fb tw
বিদ্যুতের পুরনো লাইন ও ট্রান্সফর্মার ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলেছে রাজধানীবাসীর জীবন। নগরবাসীর অভিযোগ, পুরনো লাইন ও অবৈধ সংযোগের যে জঞ্জাল তৈরি হয়েছে তা থেকে যেকোনো সময় ঘটে যেতে পারে বড় দুর্ঘটনা। ডিপিডিসির আশ্বাস, পর্যায়ক্রমে সব লাইন মাটির নিচ দিয়ে নেয়া হলে শতভাগ নিরাপদ বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব হবে।
পুরান ঢাকার ইসলামবাগে আবাসিক এলাকার অলিগলিতে কারখানা। শতবছরের পথচলায় বাড়তে থাকা গ্রাহকের চাহিদা। সে তুলনায় নিরাপদ বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনে তারা কতটা সচেষ্ট তা এ চিত্র দেখেই বোঝা যায়।
২৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর (ডিএসসিসি) জাহাঙ্গীর হোসেন বাবুল বলেন, ঘনবসতি ঘন ঘন ফ্যাক্টরি হওয়ায় ঘন ঘন ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণ হয়ে যায়। বছর খানেক আগে শর্ট সার্কিট হয়ে তিনজন মানুষ মারা যায়।
শুধু কি কর্তৃপক্ষের গাফিলতি? জায়গা সংকটের অজুহাতে পুরান ঢাকার অনেক বাসিন্দাই জীবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলে বাড়িঘর বানিয়েছেন। দুর্ঘটনার আতঙ্ক নিয়েই তাদের বসবাস।
এলাকাবাসী বলছেন, এখানে বিদ্যুতের খুঁটি ১৫ বছর ধরে বাঁকা হয়ে আছে, অন্য বাসার সঙ্গে হেলে আছে। ফ্যাক্টরি বেশি হওয়ায় মাঝে মাঝে দুর্ঘটনা ঘটে যায়।
ডিপিডিসির গ্রাহক ১২ লাখেরও বেশি। ১৯,৫৮৭টি ট্রান্সফর্মার, ১,১৯০ কিলোমিটার খোলা ও ৩,২৩৬ কিলোমিটার কাভার তার রয়েছে সংস্থাাটির। ডেসকো, ডিপিডিসি-দু সংস্থারই তারে রয়েছে অন্য তারের জট।
কর্তৃপক্ষের দাবি, মেট্রোরেল এলাকা ও ধানমণ্ডির বেশ কিছু জায়গায় মাটির নিচে সঞ্চালন লাইন তৈরি হয়েছে। পুরো শহরে ভূগর্ভস্থ লাইন স্থাপনের বাস্তবতা যাচাইয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজও শুরু হয়েছে।
ডিপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী বিকাশ দেওয়ান বলেন, শুধু ৩৩ কেবি এবং ১৩২ কেবিতে কিছু আন্ডারগ্রউন্ড কেবল শহরে আছে। আমাদের কিছুদিন সময় লাগবে।  
তারের জট সরাতে মাঝেমধ্যে অভিযানের দাবি ডিপিডিসি ও ডেসকোর। সাধারণ মানুষকে ঝুঁকিপূর্ণ চলাচল ও অবৈধ বৈদ্যুতিক সংযোগ এড়িয়ে চলার আহ্বান তাদের।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop