আন্তর্জাতিক সময়ব্রেক্সিট পেছাবে না ব্রিটেন

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
ব্রিটিশ পার্লামেন্টের পক্ষ থেকে ব্রেক্সিট পেছানোর যেকোন প্রস্তাব সরকার প্রত্যাখ্যান করবে বলে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে জানাবেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।
ইউরোপীয় কমিশনের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জ্যঁ ক্লদ জাঙ্কারের সঙ্গে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক সামনে রেখে এ কথা জানিয়েছে ডাউনিং স্ট্রিট।
আগামী মাসের ইইউ সম্মেলনের আগেই জোটের সঙ্গে ব্রেক্সিট চুক্তিতে পৌঁছানো সম্ভব হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।
চুক্তির বিষয়ে বেশকিছু অগ্রগতি হলেও, এখনও উল্লেখযোগ্য কিছু কাজ করা বাকি বলে জানিয়েছেন ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী স্টিফেন বারক্লে।
এদিকে, আগামী নির্বাচনে জয়ী হলে, ব্রেক্সিট বাতিল করে ইইউ'তে থাকার অঙ্গীকার করেছে ব্রিটেনের লিবারাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি।
ব্রেক্সিট নিয়ে চলমান অনিশ্চয়তার মধ্যেই ব্রিটেনের আগামী সাধারন নির্বাচন সামনে রেখে সম্মেলনের আয়োজন করেছে লিবারাল ডেমোক্র্যাট পার্টি।
রোববার লন্ডনে দলীয় কার্যালয়ে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
এতে, আনুষ্ঠানিকভাবে আগামী ব্রেক্সিটের বিরুদ্ধে নীতিগত অবস্থানের বিষয়ে একমত হন দলীয় সদস্যরা। সেইসঙ্গে, আগামী নির্বাচনে জয়ী হলে, ব্রেক্সিট বাতিল করে ইউরোপীয় ইউনিয়নে থাকার অঙ্গীকারও করেন দলীয় প্রধান জো সুইনসন।
জো সুইনসন বলেন, এটা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই যে, পুরো দেশ বর্তমানে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছে। আমাদের নিজস্ব রাজনৈতিক অবস্থান পরিষ্কার করা ছাড়া আমরা এই বিভক্তি দূর করতে পারবোনা। আমরা বিশ্বাস করি ইউরোপীয় ইউনিয়নে থাকাটাই আমাদের ভবিষ্যতের জন্য সর্বোত্তম সিদ্ধান্ত। আর তাই 'ব্রেক্সিট বন্ধ কর' এই স্লোগান নিয়েই আগামী নির্বাচনে প্রচারণা চালাবো আমরা। জনগণ যদি আমাদের এই ব্রেক্সিটবিরোধী অবস্থানকে সমর্থন দেয়, তবে যতদ্রুত সম্ভব ব্রেক্সিট বাতিলের পদক্ষেপ নেবো আমরা।
এর মধ্যেই, সোমবার প্রথমবারের মতো ইউরোপীয় কমিশনের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জ্য ক্লদ জাঙ্কারের সঙ্গে লুক্সেমবার্গে বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।
এক বিবৃতিতে ডাউনিং স্ট্রিট জানিয়েছেন, ব্রেক্সিট পেছাতে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের যেকোন প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করা হবে বলে ওই বৈঠকে জাঙ্কারকে জানাবেন বরিস।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বরাত দিয়ে আগামী মাসের ১৮ই অক্টোবর অনুষ্ঠেয় ইইউ সম্মেলনের আগেই ইইউ'র সঙ্গে চুক্তিতে পৌঁছানো সম্ভব হবে বলেও জানানো হয়।
এদিকে, ব্রিটেনের ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী স্টিফেন বারক্লে বলেছেন, চুক্তির বিষয়ে এরইমধ্যে বেশ কিছু অগ্রগতি হয়েছে। তবে, উল্লেখযোগ্য কিছু বিষয়ে এখনও দু'পক্ষের মতবিরোধ রয়ে গেছে।
স্টিফেন বারক্লে বলেছেন, সত্যি কথা বলতে, পর্দার আড়ালে আমাদের বিশাল কর্মযজ্ঞ চলছে। আলোচনাও অব্যাহত রয়েছে। তবে, এটা ঠিক আমাদের আরও অনেক কিছু করা বাকি। আমাদের পক্ষ থেকে অবস্থান পরিষ্কার করা হয়েছে। তারাও আলোচনায় বেশ আন্তরিক। আমরা একটি সেরা বাণিজ্যচুক্তি চাই, যা উভয়পক্ষের জন্যই সহায়ক।
আগামী ৩১শে অক্টোবরের মধ্যে ব্রিটেনের ইইউ ছাড়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তবে, ব্রিটিশ পার্লামেন্টে চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের বিরুদ্ধে বিল পাস হওয়ায়, এই সময়ের মধ্যে চুক্তি সই সম্ভব না হলে, আগামী ৩১শে জানুয়ারি পর্যন্ত ব্রেক্সিট পেছাতে ইইউ'র দ্বারস্থ হতে হবে বরিস জনসনকে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop