মহানগর সময়'মাথায় পিস্তল ধরে বলে, একদম ফুটায়্যালাম, চেনোস?'

খান মুহাম্মদ রুমেল

fb tw
নিকেতন এলাকায় ত্রাসের নাম জি কে শামীম। আবাসিক এলাকায় বাণিজ্যিক অফিস নিয়ে নানাভাবে হয়রানি করতেন এলাকাবাসীকে। পিস্তল ঠেকিয়ে ফ্ল্যাট, পার্কিং দখল, সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক চলাফেরায় বাঁধা দেয়াসহ নানা অভিযোগ তার বিরুদ্ধে। র‌্যাব বলছে, এসব বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
নিকেতনে জি কে শামীমের কার্যালয়ের পাশের ভবনের একটি ফ্ল্যাটের মালিক খালেদুর রহমান। অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তার প্রবাসী কন্যার একটি ফ্ল্যাট দেখাশোনা করেন তিনিই। খালেদুর রহমান জানান, বছরখানেক আগে সেই ভবনে একটি ফ্ল্যাট কেনেন শামীম। এরপর থেকেই শুরু হয় তার অত্যাচার।
নানাভাবে খালেদের ফ্ল্যাট দখলের চেষ্টা করেন শামীম। তাড়িয়ে দেন ভাড়াটিয়াদের। এমনকি ভবনের নিচে খালেদের পার্কিংয়ের জায়গা দখল করে নেয় শামীমের লোকজন। পার্কিংলট থেকে খালেদের নম্বর প্লেট ফেলে দেয় শামীমের দেহরক্ষী রনি। বাধা দিলে ভবনের নিরাপত্তাকর্মীকে মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ তাদের।
সরেজমিন ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় খালেদের পার্কিংয়ের স্থানে একটি পরিত্যক্ত সোফা রেখে দিয়েছে শামীমের লোকজন। শামীমের গ্রেফতারের খবর শুনে নতুন একটি নম্বরপ্লেট বানিয়ে ভবনে এসেছেন খালেদ।
খালেদ বলেন, 'শামীমের বডিগার্ড এসে আমার সব জিনিসপত্র ফেলে তার জিনিস রাখতো। এছাড়া আমার সিকিউরিটিগার্ডকে পিস্তল দেখিয়ে ভয় দেখিয়েছে। আমরা নিরীহ মানুষ, আর কিছু বলতে পারিনি। চুপচাপ রয়েছি।'
ভুক্তভোগী নিরাপত্তকর্মী বলেন, 'আমাকে এসে বলে আমার গ্যারেজে গাড়ী কেনো? মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে বলে একদম ফুটায়্যালাম, চেনোস?
মাঝরাতে অসংখ্য গাড়ি ও বাইক নিয়ে এসে এলাকায় হল্লা করা, ভবনের সামনে দিয়ে কেউ হেঁটে গেলেও তাদের নানা হুমকি দেয়ার অভিযোগ এলাকার লোকজনের।
এদিকে রোববার শামীমের কার্যালয়ে গেলে প্রবেশে বাঁধা দেন নিরাপত্তাকর্মীরা। তবে ভবনের নিচে পড়ে থাকতে দেখা যায় শামীমের দেহরক্ষীদের কয়েকটি বাইক।
এছাড়া অবৈধ টেন্ডার বাণিজ্য, কথায় কথায় মানুষকে লাঞ্ছিত করাসহ শামীমের বিরুদ্ধে বহু অভিযোগ পাওয়ার কথা বলছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সূত্র। র‌্যাব বলছে, সব অভিযোগ খতিয়ে দেখছেন তারা। অভিযোগ পেলেই নেয়া হবে ব্যবস্থা।
র‍্যাব পরিচালক আইন ও গণমাধ্যম শাখা লে. কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম বলেন, 'শামীমের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ। ভুক্তভোগীরা আসলে আমরা অবশ্যয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।'
রাজনৈতিক পরিচয় ব্যবহার করে অবৈধ আধিপত্য বন্ধে প্রয়োজনে আরো অভিযান পরিচালনা করা হবে বলেও জানান র‌্যাব কর্মকর্তারা।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop