শিক্ষা সময়পুলিশ পাহারায় ক্যাম্পাস ছাড়লেন বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্য

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক খোন্দকার নাসিরউদ্দিন ক্যাম্পাস ত্যাগ করেছেন।
রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাত সোয়া ৭টার দিকে পুলিশের কড়া পাহারায় তিনি ক্যাম্পাসে সরকারি বাসভবন থেকে বের হয়ে যান।
গোপালগঞ্জ পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সাইদুর রহমান খান সাংবাদিকদের বলেন, উপাচার্য আমাকে ফোন করে জানান-তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থতা অনুভব করছেন। পুলিশ প্রটেকশন দিয়ে ক্যাম্পাস থেকে বের হওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।
 মানবিক বিবেচনায় পুলিশ প্রটেকশনে তাকে ক্যাম্পাস থেকে বের হওয়ার সহযোগিতা করা হয়েছে বলে পুলিশ সুপার (এসপি)।
উপাচার্য কোথায় যাচ্ছেন? এমন প্রশ্নে এসপি বলেন, তিনি কোথায় যাবেন সে বিষয়ে আমাকে কিছু বলেননি।
এদিকে, পুলিশের কড়া পাহারায় ক্যাম্পাস থেকে বের হওয়ার সময় উপাচার্য়ের গাড়ির সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা স্লোগান দেন।
এর আগে বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্যকে অপসারণের সুপারিশ করে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) গঠিত কমিটি। একইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে ওঠা অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেয়ারও সুপারিশ করেছে কমিটি।
বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, এ প্রথম দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করা হলো। প্রতিবেদন শিক্ষা মন্ত্রণালয়েও জমা দেয়া হয়েছে। সুপারিশ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ইউজিসির পাঁচ সদস্যের এ কমিটি প্রতিবেদনটি সংস্থাটির চেয়ারম্যানের কাছে জমা দেয়। পরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দেয়া হয়।
ইউজিসির সদস্য (পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়) দিল আফরোজা বেগম তদন্ত প্রতিবেদন জমার বিষয়টি নিশ্চিত করেন তবে তিনি প্রতিবেদনের বিষয়বস্তু সম্পর্কে বলতে রাজি হননি।
গত ১১ দিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন। তার পরিপ্রেক্ষিতেই ২৩ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় ইউজিসিকে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের সামগ্রিক তথ্যাদি জানাতে অনুরোধ করে। এর পরদিন ২৪ সেপ্টেম্বর ইউজিসির সদস্য মুহাম্মদ আলমগীরকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। ২৫ সেপ্টেম্বর কমিটি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে সরেজমিনে যায়। সেখানে দুই দিন সরেজমিনে কাজ করে তদন্ত কমিটি।
কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- ইউজিসির সদস্য দিল আফরোজা বেগম, ইউজিসির সদস্য সাজ্জাদ হুসেন, ইউজিসির পরিচালক কামাল হোসেন ও মৌলি আজাদ (সদস্যসচিব)।
প্রসঙ্গত, গত ১১ সেপ্টেম্বর আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। পরে জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ তুলে নেয়াসহ আরও কয়েকটি দাবি কর্তৃপক্ষ মেনে নিলেও ভিসির পদত্যাগের দাবিতে ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া অন্দোলন অব্যাহত রাখেন শিক্ষার্থীরা। অন্দোলনের মধ্যে ২১ সেপ্টেম্বর বেলা ১২টার দিকে ক্যাম্পাসের বাইরে বেশ কয়েকটি জায়গায় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে এদিন বশেমুরবিপ্রবি বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। একই দিন শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টরের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেন মো. হুমায়ুন কবির।
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop