বাণিজ্য সময়খাতুনগঞ্জের বাজারে পেঁয়াজের দুরবস্থা

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
ভারতের রফতানি বন্ধের ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে ৫০ টাকার পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ হয়ে যায়। রাতারাতি সিন্ডিকেট করে মজুদ করা হয়। এই পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে দাম ঠেকেছে ১০ থেকে ১৫ টাকায়। আবার বিক্রি করতে না পেরে অনেকেই ফেলে দিচ্ছেন বস্তায় বস্তায়। ভোগ্যপণ্যের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের কিছু কিছু আড়তে দেখা দিয়েছে পেঁয়াজের এমনি দুরবস্থা। তবে ব্যবসায়ীদের দাবি, রপ্তানিকারকরা স্থল বন্দরগুলোতে পেঁয়াজ দীর্ঘদিন ধরে আটকে রাখায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। 
ভোগ্যপণ্যের সবচে বড় পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে আড়তের বাইরে বস্তায় বস্তায় এভাবেই ফেলে রেখেছে পচে যাওয়া পেঁয়াজ। যা এখন বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ১০ থেকে ১৫ টাকায়। বিক্রি করতে না পেরে ফেলেও দিচ্ছেন অনেক ব্যবসায়ী । অভিযোগ আছে অতিলোভের আশায় ব্যবসায়ীরা মজুদ করে রাখায় এমন দুরাবস্থা পেঁয়াজের।
একজন বলেন, পেঁয়াজগুলো ৬০ টাকা দরে কিনা, এখন বিক্রি করতেছি ২০ টাকা দরে। এখান কেজিতে ৪০ টাকাই লোকসান।
তবে ব্যবসায়ীদের দাবি,স্থল বন্দরগুলোতে ট্রাকে ট্রাকে মজুদ করে রেখেছে ভারতের ব্যবসায়ীরা। একই সাথে আমদানির সময় ট্রলারে অতিরিক্ত বোঝাই এবং বেশি লাভের আশায় অপরিপক্ক পেঁয়াজ রপ্তানি করেছে মিয়ানমার। তাই ৬০ থেকে ৭০ টাকায় আমদানি করা পেয়াজ নষ্ট হওয়ায় বিক্রির করতে হচ্ছে পানির দরে।
এক ব্যবসায়ী বলেন, পেঁয়াজগুলো নদী পথে জাহাজে আসে, তাই জাহাজের অতিরিক্ত মাল বোঝায়ের কারণে এই মালগুলো নষ্ট হয়ে গেছে।
আরেক ব্যবসায়ী বলেন, মিয়ারমারের সেখানে মালের লোড করা হয়। সেখান থেকে আসতে অনেক সময় লাগে তাই মালগুলো খুব তারাতারি নষ্ট হয়।
পেঁয়াজ মজুদের কথা অস্বীকার করলেন ব্যবসায়ী নেতারা। আর চেম্বার নেতা বলছেন, পেঁয়াজ নিয়ে সরকারের নতুন করে এখন থেকে ভাবা উচিৎ।
চট্টগ্রাম খাতুনগঞ্জ আড়ৎদার কল্যাণ সমিতি চাক্তাই সাবেক সাধারণ এহসান উল্লাহ জাহেদী বলেন, পেঁয়াজ আসলে বেশিদিন ধরে রাখলে, পেঁয়াজটা পচে যাবে। যার কারণে কেউ এই কাজ করবে না।
চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ পরিচালক সৈয়দ ছগির আহমেদ বলেন, সরকার যদি একটু গভীর ভাবে চিন্তা করে, এবং কৃষকদের নিয়ে একটু কাজ করে তাহলে আমার মনে হয়, ভারতের উপর পেঁয়াজের যে নির্ভরতা আছে, সেটা থেকে উত্তরণ ঘটাতে পারবো। 
১৩ সেপ্টেম্বর রপ্তানি মূল্য বৃদ্ধির পর ২৯ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত। হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তে লাফিয়ে লাফিয়ে প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম একশোতে ঠেকে। তবে এখন বাজার দ্রুত নিম্নমুখী।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop