খেলার সময়রাতে মাঠে নামছে নেদারল্যান্ডস-হাঙ্গেরি-ক্রোয়েশিয়া

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
ইউরো বাছাইপর্বে মূল আসরে জায়গা করে নিতে এবার নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে নেদারল্যান্ডস। নিজেদের মাঠে আইরিশ বাঁধা পার হওয়ার কোন বিকল্প নেই ডাচদের সামনে। আরেক ম্যাচে হাঙ্গেরিকে আতিথ্য দেবে ক্রোয়েশিয়া। প্রথম পর্বের হারের শোধ তুলতে মরিয়া ক্রোয়াটরা। রাতে একই সময় বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে স্যান ম্যারিনো। সবগুলো ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার (১১ অক্টোবর) রাত পৌনে একটায়।
ইউরো বাছাইপর্বে মূল আসরে জায়গা করে নিতে এবার নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে নেদারল্যান্ডস। নিজেদের মাঠে আইরিশ বাঁধা পার হওয়ার কোন বিকল্প নেই ডাচদের সামনে। আরেক ম্যাচে হাঙ্গেরিকে আতিথ্য দেবে ক্রোয়েশিয়া। প্রথম পর্বের হারের শোধ তুলতে মরিয়া ক্রোয়াটরা। রাতে একই সময় বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে স্যান ম্যারিনো। সবগুলো ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার (১১ অক্টোবর) রাত পৌনে একটায়।
শেষ দিকে চলে এসেছে বাছাই পর্বের লড়াই। অধিকাংশ গ্রুপেই মূল পর্বের লড়াইটা এসে থেমে গেছে দু'একটা দলের মধ্যে। তবে, উত্তেজনার পারদ এখন চরমে ইউরোর বাছাইয়ে।
রাতে রটারডামের দি কুইপ স্টেডিয়ামে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডস। মূল আসরে যাবার লড়াই থেকে অনেক আগেই ছিটকে গেছে বেলারুশ এবং এস্তোনিয়া। জার্মানদের সঙ্গে লড়াইয়ে টিকে আছে ডাচ আর আইরিশরা। ম্যাচটা তাই অবধারিতভাবেই গুরুত্বপূর্ণ দু দলের জন্য।
এস্তোনিয়া-জার্মানিকে উড়িয়ে দুর্দান্ত একটা শুরু করেছিলো কমলা শিবির। কিন্তু সময়ের সাথে তাদের সেই ছন্দ থেমে গেছে। প্রীতি ম্যাচগুলোতে বাজেভাবে হারের ক্ষত ভুলতে পারেনি ডাচরা। যার প্রভাব এসেছে ইউরোর বাছাইয়েও।
তাই হয়তো আইরিশ বাঁধা পার হতে এবার বেশ মরিয়া নেদারল্যান্ডস। অতীত ইতিহাসটা হাওয়া দিচ্ছে সে পালে। দেখা হওয়া শেষ দু ম্যাচেই বড় জয় আছে ডাচদের। আর ঘরের মাঠে এই প্রতিপক্ষকে গুণে গুণে ৬ গোল দেয়ার সুখস্মৃতি তো রয়েছেই। রাশিয়া বিশ্বকাপের রানারআপদের ফর্মটা আর আগের মতো নেই। এক ম্যাচে জয় তো পরের ম্যাচেই হারের চোরাবালি ক্রোয়াটদের নিয়তি।
হাঙ্গেরির মুখোমুখি হওয়ার আগে খুব একটা স্বস্তিতে নেই তারা। আগের লেগে এই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে হারের তিক্ততা পেতে হয়েছে ক্রোয়াটদের। সেই দুঃস্মৃতি ভুলে, নতুন লড়াইয়ের জন্য শিষ্যদের চাঙ্গা করাই এখন মূল চ্যালেঞ্জ জলাতকো দালিচের জন্য।
তবে, ইউরোর বাছাইয়ে টেবিল টপার হওয়াতে ম্যাচের আগে ফুরফুরে ক্রোয়েশিয়া। ইনজুরি সমস্যাও নেই খুব একটা। তার ওপর সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স হিসেব করলেও, দুশ্চিন্তাটা থাকবে হাঙ্গেরির-ই।
কিন্তু পরিসংখ্যান দেখলে আশাবাদী হবে না কোন দলই। শেষ ম্যাচটা হাঙ্গেরি জিতলেও আগের ৪ দেখাই শেষ হয়েছে অমিমাংসীতভাবে।

ইউরোর বাছাইপর্বের সবচেয়ে নিরাপদ ম্যাচটা খেলতে নামবে বেলজিয়াম। নিজেদের মাঠে স্যান ম্যারিনোকে আতিথ্য দেবে কালো ঘোড়ারা। আর মাত্র ২ পয়েন্ট পেলেই গাণিতিকভাবে ইউরো-২০২০ এর মূল পর্ব নিশ্চিত হয়ে যাবে তাদের।
ক্লাবগুলোতে হ্যাজার্ড-লুকাকুদের ফর্মটা যাই থাকুক, জাতীয় দলের জার্সি গায়ে এখনো অপ্রতিরোধ্য রেড ডেভিলরা। বাছাইপর্বে তাদের জয়গুলো এসেছে প্রতিপক্ষকে দুমরে-মুচড়ে। যেখানে নিজেদের ১৯ গোলের বিপরীতে মাত্র ১ গোল হজম করেছেন থিবো কর্তোয়া।
ইতিহাসের পাতাতেও সুখবরের ছড়াছড়ি বেলজিয়ানদের জন্য। স্যান ম্যারিনো যে কখনই হারাতে পারেনি হ্যাজার্ডদের। মার্টিনেজ শিবিরে অস্বস্তি যদি কিছু থেকে থাকে, তা আছে তার স্কোয়াড গোছানো নিয়ে। হালকা ইনজুরি থাকায় ম্যাচ খেলা নিয়ে শঙ্কা আছে কেভিন ডি ব্রুইনির।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop