ksrm

আন্তর্জাতিক সময়তুরস্কের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে চলমান তুর্কি অভিযান বন্ধে চাপ প্রয়োগ করতে আঙ্কারার ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।
এ বিষয়ে উদ্যোগ নিতে মার্কিন অর্থমন্ত্রীকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে এ চাপ উপেক্ষা করে সিরিয়া সন্ত্রাসীমুক্ত না হওয়া পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান।
শুক্রবার উত্তর সিরিয়ার বিভিন্ন জায়গায় তুর্কি হামলায় অন্তত ১৮ বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। গেল চারদিনের অভিযানে বাস্তুচ্যুত হয়েছে ১০ লাখের বেশি বাসিন্দা।
রাতভর হামলা আর পাল্টা হামলা, বোমা বিস্ফোরণের মুহুর্মুহু শব্দে প্রকম্পিত সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলের কামিশলি, তেল আবায়াদসহ আশপাশের নানা অঞ্চল। সেখানে টানা চতুর্থদিনের মতো মারণাস্ত্র নিয়ে কুর্দিবিরোধী অভিযান চালাচ্ছে তুর্কি বাহিনী। প্রাণ বাঁচাতে বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে লাখ লাখ বেসামরিক সিরীয়। বাস্তুচ্যুত এ মানুষগুলো নিজ ভিটাবাড়ি ছেড়ে এসে এখন দিশেহারা।
স্থানীয়রা বলেন, এভাবে এক একটা দিন বেঁচে থাকতে পারাই যেন ভাগ্যের ব্যাপার। দিনের পর দিন আমরা এখান থেকে সেখানে কেবল ছুটে চলেছি।
টিকে থাকার এ লড়াই করতে করতে ভীষণ ক্লান্ত আমরা। কি যে আতঙ্ক! বাচ্চাদের নিয়ে আমরাও যেন প্রতিদিন যুদ্ধ করছি।
হামলায় প্রতিদিনই বহু বেসামরিক মানুষ প্রাণ হারাচ্ছে। চরম মানবিক সংকটাপন্ন দেশটিতে হামলা বন্ধ করতে বারবার তুরস্কের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আসছে জাতিসংঘ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, রেড ক্রসসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। অভিযান বন্ধে আঙ্কারার ওপর চাপ প্রয়োগ করতে খুব শিগগিরই দেশটির ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন প্রশাসন। শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
ট্রাম্প বলেন, শত শত বছর ধরে তুর্কি আর কুর্দি বাহিনী যুদ্ধ করে আসছে। সেটা নিয়ে আমরা কখনও মাথা ঘামাইনি। সারাবিশ্বে শরণার্থী আর যুদ্ধ বিধ্বস্ত এলাকাগুলোর পেছনে যুক্তরাষ্ট্র কোটি কোটি টাকা ব্যয় করে। আর তা যদি করতেই হয়, তবে তুরস্ক সিরিয়ায় কী করছে, তা নিয়ে আমাদের মাথা ঘামানোটা স্বাভাবিক।।
এর আগে, মার্কিন অর্থমন্ত্রী জানান, তুর্কি সেনাবাহিনীকে যেসব প্রতিষ্ঠান জ্বালানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহ করে এবং যেসব ব্যাংকের মাধ্যমে এসব বেচাকেনার অর্থ লেনদেন হয়, সেগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে যুক্তরাষ্ট্র।
তবে চলমান অভিযান সন্ত্রাস দমনের উদ্দেশে পরিচালিত হচ্ছে দাবি করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান বলেছেন, সিরিয়া থেকে সন্ত্রাসীদের বিতাড়ন করে, একটি মুক্ত অঞ্চল প্রতিষ্ঠা না করা পরিণত পর্যন্ত এ অভিযান চলবে। শুক্রবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, যুদ্ধের কারণে পালিয়ে যাওয়া বাসিন্দাদের ফিরে আসার উপযুক্ত পরিবেশ কেবল এভাবেই সৃষ্টি হতে পারে।
এরদোয়ান বলেন, চারপাশ থেকে অনেক হুমকিই আসছে। কিন্তু যে যা-ই বলুক আর আমাদের ওপর যতো চাপই প্রয়োগের চেষ্টা করা হোক না কেন, এ অভিযান আমরা বন্ধ করবো না। আমরা বলেছিলাম, পারলে সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রণ করতে। কিন্তু তারা সে চেষ্টা বিন্দুমাত্র করেনি। তাই এবার আর আমাদের থামানো যাবে না।
তুরস্কের সিরীয় সীমান্তবর্তী আক্কাকালে অঞ্চলে শুক্রবারও নতুন করে বহু সমরাস্ত্র আর বোমা বারুদ মজুদ করেছে আঙ্কারা।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop