ksrm

শিক্ষা সময়ছাত্ররাজনীতি বন্ধ, নাকি সংস্কার?

বেলায়েত হোসাইন

fb tw
ছাত্ররাজনীতি বন্ধ নাকি সংস্কার-এ নিয়ে চলছে নানা মহলে চুলচেরা বিশ্লেষণ। শিক্ষার্থীরা বলছেন, যখন যে দল ক্ষমতায় আসে, তখন সে দলের ছাত্রসংগঠনের নির্যাতনে দুর্বিসহ হয়ে ওঠে শিক্ষাজীবন। তাই দেশের সব ক্যাম্পাসেই দলীয় লেজুড়ভিত্তিক রাজনীতি বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের স্বতন্ত্র রাজনীতির প্রয়োজন বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার পর নতুন করে আবারও সমালোচনার মুখে ছাত্ররাজনীতি। শুধু আবরারই নয়, একের পর হত্যা, র‌্যাগিং আর গেস্টরুমের নির্যাতন। নানা তিক্ত অভিজ্ঞতায় ছাত্ররাজনীতি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন অনেকেই। ঘৃণা আর ক্ষোভ ছাড়া যেন কিছুই অবশিষ্ট নেই ছাত্ররাজনীতির প্রতি।
শিক্ষার্থীদের একজন বলেন, ‘যাদের মিছিল মিটিংয়ে নিয়ে যাওয়া হয় কষ্টের পরে তারা পরদিন ঠিকমত পরীক্ষা দিতে পারে না।’
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমও সরগরম এ ইস্যুতে। কেউ সরাসরি তুলছেন নিষিদ্ধের দাবি, আবার কেউ বলছেন অপরাজনীতির সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে তৈরি করতে হবে শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ের যৌক্তিক প্ল্যাটফর্ম।
দাবির মুখে এরইমধ্যে বুয়েটে নিষিদ্ধ হয়েছে সব ধরনের রাজনীতি। দলভিত্তিক রাজনীতি চায় না দেশের অন্যান্য ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরাও।
শুধু বুয়েটেই নয়, ছাত্ররাজনীতির সংস্কার করে দেশের প্রতিটি ক্যাম্পাসে দলীয় প্রভাবমুক্ত ছাত্র সংসদ গঠনের পরামর্শ বিশ্লেষকদের।
রাজনৈতিক বিশ্লেষক প্রফেসর সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘ছাত্র সংসদ রাজনীতি করবে আদর্শভিত্তিক। কিন্তু দলীয় লেজুড়ভিত্তিক নয়। ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ হলে দেশ রসাতলে চলে যাবে।’
ছাত্ররাজনীতির ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে ক্ষমতাকেন্দ্রিক ছত্রচ্ছায়া বন্ধের ওপরও তাগিদ দেন তিনি।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop